টাইমলাইনভারত

হিন্দুদের উপর হওয়া অত্যাচার নিয়ে রাজ্য সরকারের উপর ক্ষুব্ধ VHP! সংগঠনের তরফ থেকে আগামী দিনে পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারি

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ  বিহারে হিন্দুদের উপর বেড়ে চলে হামলা নিয়ে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ (VHP) ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। VHP রাজ্য সরকারের কাছে হিন্দুদের সুরক্ষা, তাদের অভিযোগের উপর তৎকাল পদক্ষেপ আর সীমান্তবর্তী এলাকায় বাংলাদেশি এবং রোহিঙ্গাদের অনুপ্রবেশ বন্ধ করার দাবি জানিয়েছে। VHP বিহারে হিন্দুদের উপর হওয়া অত্যাচারের বিরুদ্ধে সরকারকে পদক্ষেপ নিতে বলছে এবং হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে যে, VHP সমস্ত মামলা গুলোর অধ্যায়ন করছে আর আগামী দিনে নির্ণয় নেওয়ার উপর জোর দিচ্ছে।

VHP এর কেন্দ্রীয় মহাসচিব মিলিন্দ পারান্দে (MILIND PARANDE) বলেছেন, গোপালগঞ্জ এর কটৈয়া থানা এলাকায় মুসলিম দ্বারা ১৫ বছর বয়সী হিন্দু কিশোর রোহিত জসওয়ালের নির্মম হত্যার দেড় মার কেটে যাওয়ার পরেও স্থানীয় পুলিশ শুধু হত্যাকারীদের ছেড়েই রাখেনি, তাঁরা নির্যাতিত পরিবারকে ভয় দেখিয়ে গ্রাম ছাড়তে বাধ্য করেছে। শুধু তাই নয়, এটাও শোনা যাচ্ছে যে, রোহিতের হত্যার পর এবার পরিবারের বাকি সদস্যদেরও প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

MILIND PARANDE

মিলিন্দ পারান্দে বলেন, এরকম ঘটনা শুধু একটাই না, অনেক আছে। কিষাণগঞ্জে ১৫ বছর বয়সী হিন্দু দলিত কিশোরীকে মুসলিমরা গণ ধর্ষণ করে হত্যা করে। এছাড়াও বেগুসরাইয়ের সরৈয়া গ্রামে রমজান মাসে এক যুবককে রামায়ণ না পড়তে দেওয়ার ঘটনা। নালন্দায় হিন্দু ব্যবসায়ি দ্বারা ‘ওম” ঝাণ্ডা লাগানোয় মামলা দায়ের।

উনি বলেন, এরকম ঘটনা গোটা রাজ্যে অগণিত আছে। উনি এই ঘটনা গুলোর জন্য সরাসরি মুসলিমদের দায়ি করেছেন। আর রাজ্য সরকারের উপর অভিযোগ করে বলেছেন, সরকারে উদাসীনতার জন্য হিন্দু পরিবার গুলো প্পলায়ন করতে বাধ্য হচ্ছে।

বিশ্ব হিন্দু পরিষদের রাষ্ট্রীয় মহাসচিব বলেন, রাজ্যের সীমান্তবর্তী এলাকায় বেড়ে চলা মসজিদ এবং মাদ্রাসা গুলো বাংলাদেশি আর রহিঙ্গা মুসলিমদের সন্ত্রাসী আড্ডার আঁতুড় ঘর হয়ে উঠেছে। আর এই কারণে ওই এলাকা গুলোতে হিন্দুদের ধর্মান্তকরনের মামলাও বেড়ে গেছে। এর তদন্ত করা জরুরী বলে জানান তিনি।

Back to top button