টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

‘দখল করা জমি অতিসত্বর ফেরত দিন’! নোবেলজয়ীকে ফের চিঠি পাঠাল বিশ্বভারতী

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ দিন কয়েক থেকে নিজের করা মন্তব্যের জেরে বারংবার খবরের শিরোনামে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন (Amartya Sen)। তবে এবার আর মন্তব্য নয়, জমি দখলের অভিযোগ উঠল নোবেলজয়ীর বিরুদ্ধে। ফের অমর্ত্য সেনের কাছে দখল করা জমি ফেরত চেয়ে চিঠি পাঠাল বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় (Visva-Bharati University) কর্তৃপক্ষ।

এই মুহূর্তে অমর্ত্য সেন নিজের শান্তিনিকতনের বাড়িতেই রয়েছেন। জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার ১৩ ডেসিম্যাল জমি ফেরত চেয়ে অমর্ত্যের শান্তিনিকতনের বাড়ি ‘প্রতীচী’র ঠিকানায় চিঠি পাঠিয়েছে বিশ্বভারতী। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অভিযোগ, অমর্ত্য সেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৩ ডেসিম্যাল জায়গা জবর দখল করে রেখেছেন।

প্রসঙ্গত এই প্রথম নয়, এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ দাবি করেছিলেন, তাঁদের কাছে থাকা তথ্য অনুযায়ী, অমর্ত্য সেন বিশ্বভারতীর জমি দখল করে রেখেছেন। তাঁরা এও দাবি করেন রাজ্য ভূমি সংস্কারের তরফে নিয়ম মেনে বিশ্বভারতীর প্রতিনিধি, ও অমর্ত্য সেনের প্রতিনিধিদের নিয়ে সেই জমি মাপা হোক। তাহলেই সমস্ত সত্যিটা জানা যাবে। এই দাবি জানিয়ে রাজ্য সরকারের কাছে অভিযোগপত্রও পাঠানো হয় সেইসময়।

letter

তবে স্বয়ং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেই সময়ে নোবেলজয়ীর পাশে ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন। সেইসময় সেই কারণে কর্তৃপক্ষের কোনো আর্জিকেই গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। অন্যদিকে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিযোগকে ‘কল্পনাপ্রসূত’ বলে কটাক্ষ করেছিলেন অমর্ত্য সেন। নোবেলজয়ীর পাল্টা দাবি ছিল, তাঁর বাবা বাজার থেকেই আইন অনুযায়ী ওই জমি কিনেছেন। কিন্তু সেই বিতর্কের জট এখনও কাটেনি। এদিন ফের চিঠি পাঠিয়ে দখল করা জমি ফেরত চাইল বিশ্বভারতী।

Related Articles