টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচনরাজনীতি

বক্তৃতা দিতে দিতে চলে গেল বিদ্যুৎ! অবশেষে খালি গলাতেই ভাষণ দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ বাংলায় নির্বাচনী প্রচারে সভামঞ্চে ভাষণ দিতে গিয়ে সমস্যায় পড়লেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি (Smriti Irani)। জলপাইগুড়ি সদর বিধানসভাকেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থীর সমর্থনে গরাল গ্রাম পঞ্চায়েতে এদিন তাঁর মূল্যবান বক্তব্য রাখতে এসেছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

বাংলায় তৃতীয় দফা নির্বাচনের শেষ হয়েছে। আগামী ১০ ই এপ্রিল রয়েছে চতুর্থ দফা নির্বাচন। তবে পঞ্চম দফা নির্বাচনে রয়েছে জলপাইগুড়ি সদর বিধানসভাকেন্দ্রে ভোট। সেখানকারই বিজেপি প্রার্থীর সমর্থনে গতকাল সেখানে উপস্থিত হয়েছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি।

মঞ্চে উঠে বাংলার মানুষকে বিজেপির ধর্মে দীক্ষিত করার কাজ করছিলেন তিনি। তাঁর ভাষণ প্রায় শেষের দিকে চলে এসেছে। ঠিক এমন সময় এক সমস্যা দেখা দিল। আচমকাই বিদ্যুৎ-বিভ্রাট হয়ে গেল সভামঞ্চে। সভামঞ্চের মাইক, পাখা সমস্ত কিছু বন্ধ হয়ে গেলেও, কিন্তু থেমে গেলেন না মন্ত্রী।

মঞ্চের কিছুটা সামনের দিকে এগিয়ে এলেন, খালি গলাতেই বাংলার সরকারকে তুলোধনা করতে কোনরকম খামতি রাখলেন না স্মৃতি ইরানি। তিনি জোর গলায় বললেন, ‘দিদির বাংলার কি অবস্থা দেখুন আপনারা, বিদ্যুৎ নেই! এই বিদ্যুৎ-বিভ্রাটের পেছনে যে তৃণমূল নেতারাই রয়েছে, সে আমি ভালো করেই জানি’।

এই বিদ্যুৎ-বিভ্রাটের প্রসঙ্গে জলপাইগুড়ির জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত চক্রবর্তী জানিয়েছেন, ‘সমস্ত রকম আইন মেনে, অনুমতি নিয়েই এখানে একজন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর জনসভা চলছিল। কিন্তু এখানে আচমকাই লোডশেডিং হওয়াটা একটা চক্রান্ত। এখানে ইলেকট্রিক লাইন কেটে গিয়ে বিজেপির উপর থেকে মানুষের ভরসা কিছুতেই কেটে দিতে পারবে না বিরোধীরা। মানুষ ১৭ তারিখ এর জবাব দেবে’।

Back to top button