পশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

গণনার পর দফায় দফায় হিংসা, খানাকুলে তৃণমূলের কর্মীকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

বাংলা হান্ট ডেস্ক: গত ২৯ এপ্রিল ভোট মিটেছে পশ্চিমবঙ্গে। কিন্ত রাজনৈতিক হিংসায় ইতি পড়েনি। ভোটের রাত থেকেই দফায় দফায় রাজনৈতিক হিংসা রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায়। অনেকেই প্রত্যাশা করেছিলেন ভোট মিটলে হয়তো সেই সংঘর্ষ কিছুটা কমবে। কিন্ত যাবতীয় আশায় জল ঢেলে ফের নতুন করে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক হিংসার ঘটনা। ভোটদান পর্ব মিটতেই ভোটের ফলাফল বের হতেই ফের শুরু হয়েছে রাজনৈতিক হিংসার ঘটনা ইতিমধ্যেই কলকাতা-সহ বিভিন্ন জেলায় ৬ বিজেপি কর্মী-সমর্থক নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এবার হুগলির খানাকুলে এক তৃণমূল কর্মীকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে।

রবিবার ভোটের ফল প্রকাশ হতেই খানাকুলের নতিবপুরে সক্রিয় তৃণমূল কর্মী দেবু প্রামাণিকের(৪৮) ঘরে হামলা চালায় বিজেপি সমর্থকরা। এমনটাই অভিযোগ পরিবারের। বেধড়ক মারধর করা হয় দেবুকে। পাশাপাশি তার ঘর ভাঙচুর করা হয়। মারধর করা হয় পরিবারের লোকজনকেও।

সোমবার সকালে ফের হামলা চালানো হয় দেবু প্রামাণিকের বাড়িতে। প্রবল মারধর করা হয় তাকে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় দেবুকে বাড়িতেই ফেলে রেখে পালায় দুষ্কৃতীরা। আশঙ্কাজনক অবস্থা দেবুকে নতিবপুর গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করেন বাড়ির লোকজন। সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়।

খুনের ঘটনার পরেই এলাকায় হাজির হয় বিশাল পুলিস বাহিনী।  দেবু প্রাণানিকের দুই ছেলে ও স্ত্রী নিয়ে  সংসার। ছোট একটা মুদিখানা দোকান চালিয়ে তার সংসার চলত। ঘটনায় এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পড়ে। যদিও গোটা ঘটনার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বিজেপি নেতৃত্ব।এদিকে ঘটনার জেরেও সোমবার এলাকা থমথমে রয়েছে।

Back to top button