টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গআবহাওয়া

আবহাওয়ার খবর: অবশেষে পশ্চিমবঙ্গে প্রবেশ করল বর্ষা, ঘূর্নিঝড়ের পূর্বাভাস ওড়িশায়

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ অবশেষে পশ্চিমবঙ্গে প্রবেশ করছে বর্ষা। তবে একদিকে যেমন তা স্বস্তির খবর বাঙালির জন্য, তেমনি অন্যদিকে ইয়াসের দগদগে স্মৃতি কাটতে না কাটতেই ফের একবার ঘূর্ণি ঝড়ের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে ওড়িশায়। কয়েকদিন ধরেই উত্তর বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের জেরে টানা বৃষ্টিপাত চলেছে বঙ্গের বেশ কিছু অঞ্চলে। আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস ছিল এই নিম্নচাপের হাত ধরেই বঙ্গে প্রবেশ করবে বর্ষা। আইএমডি জানিয়েছে, অবশেষে আজ অর্থাৎ ১১ জুন দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমি বায়ু পুরী এবং বোলাঙ্গীর হয়ে ওড়িশার ভেতর দিয়ে প্রবেশ করেছে বাংলায়। ক্রমশ তা ক্যানিং হয়ে কৃষ্ণনগর তথা মালদার দিকে এগিয়ে যাবে বলেই অভিমত হাওয়া অফিসের। তবে একদিকে যেমন পশ্চিমবঙ্গের জন্য রয়েছে বর্ষার আগমন বার্তা তেমনই অন্যদিকে ফের একবার আতঙ্কের প্রহর গুনছে ওড়িশাবাসী।

ওড়িশায় ঘূর্ণিঝড়ের সম্ভাবনাঃ

নিম্নচাপের ফলে বাংলার জন্য ততখানি সমস্যা তৈরী না হলেও ইয়াসের দগদগে স্মৃতি মিটতে না মিটতে ফের একবার ভারি সমস্যার মুখে পড়তে চলেছে ওড়িশা। আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী এই নিম্নচাপের জেরে আগামী কয়েকদিন বেশ ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে ওড়িশার বেশ কিছু অঞ্চলে। যার মধ্যে অন্যতম, কেন্দ্রাপাড়া, জগৎসিংহপুর, কটক, ঢেঙ্কানল ও সম্বলপুর। আবহাওয়া দপ্তরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ১০ তারিখ অবধি বঙ্গোপসাগরে যথেষ্ট শক্তি সঞ্চয় করেছে ওই নিম্নচাপ। যার জেরে ঘূর্ণিঝড় সহ তা আছড়ে পড়তে চলেছে ওড়িশার উপকূলবর্তী অঞ্চলে গুলিতে। ইতিমধ্যেই বেশ কিছু অঞ্চলে জারি করা হয়েছে লাল সর্তকতা। মৎস্যজীবীদেরও বারবার সমুদ্রজলে নিষেধ করা হয়েছে। রাজ্যের বিশেষ ত্রাণ কমিশনার পিকে জেনা জানিয়েছেন, “দুর্যোগে পাহাড়ি অঞ্চলে ধসের মোকাবিলা করার জন্য দল প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ওই সব এলাকায় প্রাণহানি এড়াতে আগাম ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।”

কেমন থাকবে বাংলার আবহাওয়াঃ

এই নিম্নচাপের প্রভাব পশ্চিমবঙ্গে তেমন না পড়লেও আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী কয়েক দিন বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি হতে পারে উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু এলাকায়। বিশেষত আগামীকাল এবং পরশু দক্ষিণবঙ্গের পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝারগ্রাম, দুই মেদিনীপুর এবং হাওড়ায় প্রায় ৭ থেকে ১১ সেন্টিমিটার বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী দুদিন বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে উত্তরবঙ্গেও। হাওয়া অফিস অফিস জানিয়েছে, কালিম্পং, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার এবং দার্জিলিঙে প্রায় ৭ থেকে ১১ সেন্টিমিটার বৃষ্টিপাত হতে পারে আগামী কয়েকদিনে। এছাড়া হলুদ সর্তকতা জারি করা হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর এবং উত্তর ২৪ পরগনায়। হাওয়া অফিস জানিয়েছে, প্রায় ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে আগামী কয়েকদিন ঝড় বইতে পারে এই এলাকায়। রয়েছে বজ্রপাতের সম্ভাবনাও।

 

Related Articles

Back to top button