টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গআবহাওয়া

আবারও নিম্নচাপের ভ্রুকুটি, শুক্রবার থেকেই প্রবল বৃষ্টি বঙ্গে, ভিজবে এই সাত জেলা

বাংলাহান্ট ডেস্ক : আবারও নিম্নচাপ বঙ্গোপসাগরে। আলিপুর আবহাওয়া দফতর (Alipore Weather Office) জানাচ্ছে, আগামীকাল উত্তর পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে আবারও একটি নিম্নচাপ তৈরি হবে (Weather Update)। বৃহস্পতিবার থেকেই দক্ষিণবঙ্গে (South Bengal) আবহাওয়া পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাবে। বিকেলের পর থেকে বাড়বে বৃষ্টি। আগামিকাল শুক্রবার থেকে বৃদ্ধি পেতে চলেছে বৃষ্টির পরিমাণ। কলকাতার Kolkata Weather) আকাশ মূলত মেঘলা। বিকেল পর্যন্ত আর্দ্রতাজনিত চরম অস্বস্তি বজায় থাকবে। বিক্ষিপ্তভাবে বজ্র বিদ্যুৎ সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে পুরো দিন জুড়েই। বিকেলের পর দু এক পশলা ভারী বৃষ্টিও হতে পারে বলে জানিয়েছে মৌসম ভবন। শুক্রবার থেকে রবিবার পর্যন্ত বৃষ্টির পরিমাণ, তীব্রতা এবং ব্যাপকতা অনেকটাই বাড়তে চলেছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

এক নজরে আজকের আবহাওয়া :

সর্বোচ্চ তাপমাত্রা : ৩৪.১° সেলসিয়াস
সর্বনিম্ন তাপমাত্রা : ২৬.৩° সেলসিয়াস
আর্দ্রতা : ৯২%
বাতাস : ১৩ কিমি/ঘন্টা
মেঘে ঢাকা : ৭৩%

আজকের আবহাওয়া : কলকাতায় কাল দিনের তাপমাত্রা ছিল ৩৫.৭ ডিগ্রি। যা স্বাভাবিকের তুলনায় প্রায় ৪ ডিগ্রি বেশি। কাল রাতের তাপমাত্রা ছিল ২৯ ডিগ্রি। এই তাপমাত্রাও স্বাভাবিকের তুলনায় প্রায় ৩ ডিগ্রি বেশি। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ছিল ৮৮ শতাংশ। গতকাল কোনও বৃষ্টিপাত হয়নি শহর কলকাতায়। দিন এবং রাতের তাপমাত্রা গত দুদিনেই অস্বাভাবিক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। কাল থেকে আবারও তা স্বাভাবিকের দিকে যেতে পারে বলে জানা যাচ্ছে।

উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়া : উত্তরবঙ্গের পার্বত্য অঞ্চল, তরাই-ডুয়ার্স এবং সমতলের জেলাগুলিতে আগামি ৪৮ ঘণ্টায় বজ্র বিদ্যুৎ সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে বলেই জানাচ্ছে আবহাওয়া দফতর।

অপরদিকে, দক্ষিণবঙ্গে বৃহস্পতিবার বিকেলের পর থেকেই বৃষ্টি বাড়বে বলে জানানো হয়েছে। দক্ষিণবঙ্গের সাত জেলা বৃষ্টিতে ভিজবে বলে জানিয়েছে মৌসম ভবন। উত্তর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগণা, পূর্ব এবং পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া এবং বাঁকুড়া এই সাত জেলায় শুক্রবার থেকেই বৃষ্টির পরিমাণ বাড়তে চলেছে।

আগামীকালের আবহাওয়া : আগামী ৪৮ ঘন্টায় বৃষ্টিতে ভিজবে গোটা বাংলাই। নিম্নচাপের প্রভাবে বৃষ্টির দেখা মিলবে শহর কলকাতাতেও।এমনই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। এখন দেখার বঙ্গে বৃষ্টিট ঘাটতি কতটা মেটে।

Related Articles