টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

বাংলায় ১ জুলাই অবধি ফের বাড়ল কড়া বিধিনিষেধ, কোন কোন ক্ষেত্রে মিলল ছাড় রইল বিস্তারিত তথ্য

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ অনেকটাই কমেছে করোনা সংক্রমণ। এই মুহূর্তে নতুন সংক্রমিতের সংখ্যা পাঁচ হাজারের নিচে। যার জেরে ভাবা হয়েছিল হয়তোবা উঠে যেতে পারে কড়া বিধি নিষেধ। তবে সরকারি সূত্রের খবর ছিল, চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই। সেই অনুযায়ী আজ মুখ্য সচিবকে সঙ্গে নিয়ে প্রেস কনফারেন্স করলেন মুখ্যমন্ত্রী। জানানো হয়েছে করোনার সংক্রমণ অনেকটা কমলেও এখনই সম্পূর্ণ বিধিনিষেধ তুলে নিচ্ছে না রাজ্য।

তবে আরও বেশ কিছু ক্ষেত্রে নতুন করে ছাড় দেওয়া হয়েছে। আপাতত কড়া বিধিনিষেধের এই প্রক্রিয়া চালু থাকবে ১ জুলাই অবধি। অর্থাৎ আরও ১৫ দিন সময় নিয়েই বড় সিদ্ধান্ত নিতে চায় রাজ্য সরকার। তবে অনেকগুলি ক্ষেত্রেই আর ছাড় দেওয়া হয়েছে। মুখ্য সচিব হরি কৃষ্ণ দ্বিবেদী জানিয়েছেন রাজ্যে বিধি নিষেধ বলবৎ থাকলেও টিকা পেয়ে গিয়েছেন এমন মানুষদের জন্য অনেকক্ষেত্রেই দেওয়া হয়েছে ছাড়।

আসুন দেখে নিই কোন কোন ক্ষেত্রে কি কি ছাড় বলবৎ করল রাজ্য সরকারঃ

★ সরকারি তরফে জানানো হয়েছে যারা ইতিমধ্যেই টিকা পেয়ে গিয়েছেন তারা আগামী দিনে প্রাতঃভ্রমণ এবং পার্কে বেড়াতে যাবার অনুমতি পেতে পারেন।

★তবে এখনো বন্ধ থাকছে রেল মেট্রো এবং বাস পরিষেবা। তবে স্বাস্থ্যজনিত ক্ষেত্রে অটো এবং ট্যাক্সি পরিষেবাকে ছাড় দেওয়া হয়েছে।

★ মুখ্য সচিব আরও জানিয়েছেন সকাল ৭টা থেকে ১১টা পর্যন্ত খোলা থাকবে বাজার, মুদির দোকান ইত্যাদি। এ ছাড়া সকাল ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত অন্য দোকান ও শপিং মল, বেলা ১২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকবে, রেস্তরাঁ, পানশালা, হোটেল ।

★ অবশেষে শপিং মল খোলার ক্ষেত্রে অনুমতি দান করা হয়েছে। তবে সে ক্ষেত্রে প্রবেশ করতে পারবেন মাত্র ৩০ শতাংশ গ্রাহক।

★মুখ্য সচিব হরি কৃষ্ণ দ্বিবেদী আরও জানান, সকাল দশটা থেকে চারটে অবধি খোলা থাকবে সরকারি এবং বেসরকারি অফিস। তবে রোটেশন পদ্ধতিতে কাজ করতে পারবেন মাত্র ২৫% কর্মী।

★ছাড় দেওয়া হয়েছে টলিপাড়ার শুটিংয়ের ক্ষেত্রেও। তবে জানানো হয়েছে কত ৫০% কর্মী নিয়েই চালাতে হবে কাজ।

★ দর্শকশূন্য স্টেডিয়াম খোলা থাকলেও, জিম এবং স্পা আপাতত বন্ধ থাকছে।

Related Articles

Back to top button