টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গআবহাওয়া

ঝোড়ো হাওয়ার সাথে ভারী বৃষ্টিপাত, নিম্নচাপের ভ্রুকুটির মাঝে জারি লাল সতর্কতা! একনজরে আজকের আবহাওয়া

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ আগামী কয়েকদিনে তুমুল পরিবর্তন আসতে চলেছে আবহাওয়ায় (Weather)। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণাবর্তের জেরে আজ, রবিবার থেকেই ভারী বৃষ্টিপাত নামতে চলেছে। ইতিমধ্যেই লাল সতর্কতা জারি করেছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। উপকূলের জেলাগুলির পাশাপাশি দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সকল জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে চলেছে। স্বাভাবিকভাবেই এটিকে মরশুমের প্রথম ‘অতি ভারী বৃষ্টি’ হলে চিহ্নিত করেছে হাওয়া অফিস। অপরদিকে, উত্তরবঙ্গে (North Bengal) হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হবে বলে জানা গিয়েছে।

আবহাওয়ার খবর
সর্বোচ্চ তাপমাত্রা : ৩২.৩° সেলসিয়াস
সর্বনিম্ন তাপমাত্রা : ২৬.৭° সেলসিয়াস
আর্দ্রতা : ৮০%
বাতাস : ২০কিমি/ঘন্টা
মেঘে ঢাকা : ৭০%

আজকের আবহাওয়া
দক্ষিণে বর্ষার সময় কাল প্রায় দুই মাসের কাছাকাছি হতে চললেও এখনো পর্যন্ত ভারী বৃষ্টিপাতের সাক্ষী থাকেনি মানুষ। তবে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের কারণে আগামী মঙ্গলবার থেকে সমগ্র দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাত হতে চলেছে। ইতিমধ্যেই লাল সর্তকতা জারি করেছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। উপকূলীয় জেলাগুলিতে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বেশি হতে চলেছে। একইসঙ্গে বইবে ঝোড়ো হাওয়া। মঙ্গল এবং বুধে কলকাতার পাশাপাশি দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সকল জেলাগুলিতে প্রবল বৃষ্টিপাতের সাক্ষী থাকবে সকলে। আজ কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, দুই ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর ও পশ্চিম মেদিনীপুরের একাধিক প্রান্তে ভারী বৃষ্টিপাত হবে। আজ সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩২ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসে আপেক্ষিক আদ্রতার পরিমাণ ৮০%।

উত্তর ও দক্ষিণ বঙ্গের আবহাওয়া
বিগত কয়েকদিনে বিক্ষিপ্ত ভারী বৃষ্টিপাতের ভেসেছে দক্ষিণবঙ্গ। ফলে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের আশেপাশে থাকলেও কখনোই সম্পূর্ণ স্বস্তি মেলেনি। তবে বর্তমানে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের জেরে বৃষ্টির খরা অবশেষে মিটতে চলেছে। আজ তথা রবিবার থেকে দক্ষিণবঙ্গে ঝেঁপে নামতে চলেছে বৃষ্টি। উপকূলের জেলাগুলিতে ঝোড়ো হাওয়ার সাথে ভারী বৃষ্টিপাত হবে। বৃষ্টির পরিমাণ অবশ্য মঙ্গল এবং বুধে আরো বাড়বে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। এক্ষেত্রে ৬০ কিলোমিটার গতিবেগে হাওয়া বইতে পারে। ইতিমধ্যেই মৎস্যজীবীদের সতর্ক করা হয়েছে।

অপরদিকে, উত্তরবঙ্গে আগামী দুই দিন ভারী বৃষ্টিপাতের কোনো সম্ভাবনা নেই। অতীতে উত্তরের একাধিক জেলায় দুর্যোগের পরিস্থিতি বজায় থাকলেও বর্তমানে বৃষ্টিপাত কিছুটা কমেছে। আগামী কয়েক দিন দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি এবং কোচবিহারের মতো জেলাগুলিতে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হবে বলে জানা গিয়েছে।

আগামীকালের আবহাওয়া 
আগামী কয়েক দিন দক্ষিণবঙ্গে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে চলেছে। এক্ষেত্রে প্রবল গতিবেগে ঝোড়ো হাওয়া বইবে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই স্বস্তি মিলবে মানুষের এবং তাপমাত্রা বেশ খানিকটা নিয়ন্ত্রণে থাকবে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস।

Related Articles