fbpx
টাইমলাইনভারতরাজনীতি

CAA-তে কোথায় নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়ার কথা রয়েছে, মমতাকে চ্যালেঞ্জ অমিত শাহের

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ দেশজুড়ে সিএএ প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ-আন্দোলনের ঝড় বইছে। এই আবহে জব্বলপুরের সভা থেকে রবিবার মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়কে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন চালু হলে  দেশের অনেক মানুষ নাগরিকত্ব হারাবেন, এ কথা অনেক নেতা-নেত্রীরা দেশবাসীকে বোঝাচ্ছে। কিন্তু বিষয়টি আসলে কি তা বোঝাতে ময়দানে নামলেন অমিত শাহ। এদিনের সভা থেকে তিনি বলেন, ‘ ভারতে যতটা আপনাদের অধিকার রয়েছে, ততটাই অধিকার রয়েছে পাকিস্তান, আফগানিস্তান, বাংলাদেশ থেকে আগত হিন্দু, বৌদ্ধ, শিখ, খ্রীষ্টান, পারসি শরণার্থীদেরও।‘  মোদি সেনাপতি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাহুল গান্ধীকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন, নাগরিকত্ব আইনে এমন কোনও জায়গা দেখানো হোক, যা থেকে মনে হয়েছে, এ দেশের কারও নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়া হবে। স্পষ্ট করে তিনি জানিয়েছেন,এই আইনে কারও নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়ার সুযোগ নেই, বরং নাগরিকত্ব দিতেই এই আইন চালু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এরপর আরও আক্রমণ শাণান অমিত শাহ, বিরোধীদের অপপ্রচার বেশিদিন টিকবে না, মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে বিজেপি কর্মীরা সিএএ সম্পর্কে বোঝাতে শুরু করে দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, শনিবার রাজভবনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সাক্ষাতে মমতা জানিয়েছিলেন, তাঁরা সিএএ ও এনআরসি-র বিরুদ্ধে। এই মন্তব্যের পাল্টা জবাব দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নাকভি। তিনি মমতাকে আক্রমণ করে বলেন, ‘গোটা দেশে সিএএ লাগু হবে। পশ্চিমবঙ্গ ভারতের বাইরে নয়, তাই পশ্চিমবঙ্গেও এই আইন লাগু হবে ।  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উচিত ইতিহাস ও সংবিধানটা খুব ভালো ভাবে পড়ে নেওয়া।’

Back to top button
Close
Close