টাইমলাইনভাইরাল

স্বামীর অতিরিক্ত ভালোবাসায় বিরক্ত হয়ে আদালতের দারস্থ স্ত্রী।

 

 

বাংলা হান্ট ডেস্ক: যুগলের মধ্যে থাকা ভালোবাসাই দাম্পত্য জীবনের সুখের চাবিকাঠি।একথা মানবেন অনেকেই। কিন্তু অতিরিক্ত ভালোবাসায় বিরক্ত হয়ে স্ত্রী যে আদালতের কাছে বিচার চাইতে যেতে পারে, এমন কথা কেউ হয়ত শোনেন নি। কিন্তু ঘটলো তাই। ঘটনাটি ঘটেছে আরব আমিরশাহী এর ফুজাইরা এলাকার শারিয়ায়। প্রথম প্রথম দাম্পত্য জীবন ভালো কাটলেও পড়ে এই ঝুট ঝামেলাহীন দাম্পত্যে বিরক্তি ধরে স্ত্রীর। এমনকি অনেকবার ইচ্ছা করে স্বামীকে রাগিয়ে দাওয়ার চেষ্টা ও করেন স্ত্রী, কিন্তু তাতেও কোনো লাভ হয়নি। তাই শেষ পর্যন্ত ভরসা আদালত।

 

স্ত্রীর এই কাজে রীতিমত অবাক হয়ে স্বামী বলেছেন, “আমি তো কিছু খারাপ করিনি। একজন আদর্শ ও ভদ্র স্বামী হওয়ার চেষ্টা করেছিলাম। একবার আমার স্ত্রী শরীরের ওজন নিয়ে আপত্তি তুলেছিলেন। তাই ডায়েট চার্ট মেনে খাবার খেয়ে ও ব্যায়াম করে শরীরের মেদ ঝড়িয়েছিলাম। আমার মনে হয় বিয়ের প্রথম বছরেই সম্পর্ক গভীরতা ঠিক বোঝা যায় না। আরও কিছুটা সময় দেওয়া প্রয়োজন। প্রতিটি মানুষই তাঁদের ভুল থেকে শেখে।”

 

শুধু স্বামীই নন, আদালতে এই মামলা দায়ের হওয়ায় বিচারকগণ ও হতভম্ব।এইরকম অভিযোগের বিচার পূর্বে করেননি তারা। মহিলা জানান “বিয়ের পর থেকে একটা দিনও আমাদের ঝগড়া হয়নি। তাই আমি সবসময় প্রার্থনা করতাম যেন একদিনের জন্য হলেও অশান্তি হয়। ও আমাকে বকাবকি করুক। কিন্তু, কোনওদিনই এমনটা হয়নি। ফলে নিরুত্তাপভাবে কাটছিল আমার জীবন। বাধ্য হয়ে আদালতের দ্বারস্থ হই।”

 

তবে এই মামলার বিচার কিভাবে করবেন সে নিয়ে খোদ বিচারক রাই এখন চিন্তিত।

 

Related Articles

Back to top button