টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

মায়ের আরাধনা মায়ের হাতে, বিজেপির পুজোয় পুরোহিত অব্রাহ্মণ মহিলা! চেয়ে দেখল গোটা বাংলা

বাংলাহান্ট ডেস্ক : পুজো কারোর একার নয়। আর বাঙালির তথা সমগ্র দেশবাসীর একমাত্র বৃহত্তম উৎসব দুর্গাপূজায় রাজনীতির রং লেগেছে বহু আগেই। করোনা আবহে ২০২০ সাল থেকে বিজেপি ধুমধামের সাথে আয়োজন করছে দুর্গাপূজার। করোনাকালীন পরিস্থিতিতে ভার্চুয়ালি গেরুয়া দলের পুজোর উদ্বোধন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

গেরুয়াশিবিরের ভক্তদের যতই সবাই গোঁড়া বলুক না কেন , নিন্দুকদের মুখে ছাই দিয়ে সেই অপবাদ কে ভুল প্রমাণ করলো বিজেপি। পুজো উদ্বোধনের দু বছরের মাথায় আধুনিকতার তথা লিঙ্গ সাম্যতার নজির গড়লো বিজেপি। চলতি বছর মায়ের আরাধনায় প্রধান পুরোহিত হলেন এক অষ্টাদশ বর্ষীয়া অ- ব্রাহ্মণ নারী ।

রাজনীতির হাত ধরে নারীশক্তিকে প্রাণ পেল । শনিবার ষষ্ঠীর দিন এক নারীর হাতেই নারীশক্তির প্রতীক মা দূর্গার বোধন হল গেরুয়াশিবিরে।পুরোহিত এর নাম সুলতা মণ্ডল। গত দুই বছরের নিয়ম ভেঙে এই বছর পদ্ম শিবিরে পৌরহিত্য করবেন সুলতা । তিনি বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের এলাকা দক্ষিণ দিনাজপুরের আদি বাসিন্দা। গঙ্গারামপুর থানা অন্তর্গত ছোট্ট বাতাসকুরি গ্রামের সবার আদরের মাত্র ১৮ বছরের এই মেয়ে ইতিমধ্যেই শাস্ত্র জ্ঞ্যানে ভরপুর। শুধু তাই নয় , চণ্ডীপাঠ করতে পারদর্শী তিনি।

Woman priest,Sulata Mondal,Durga puja,BJP

এবছর মহালয়ার পরে যে হারে পুজো কমিটি গুলিতে বোধন দ্বিতীয়া তেই সারা হয়ে গেছিলো সেখানে পদ্মশিবিরে দেখা যায়নি বিশেষ কোনো আয়োজন। সবাই চিন্তায় ছিলেন পুজো আদৌ হবে কিনা সেই বিষয় নিয়ে। কিন্তু রীতিমত চমকে দিয়ে এক নজরকাড়া পুজো দেখালো বিজেপি দল। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বহু মান্য গণ্য ব্যক্তি। বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার , বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা ও অগ্নিমিত্রা পল উপস্থিত ছিলেন এই অনুষ্ঠানে।

Related Articles