টাইমলাইনভারত

সোমবার করুন মহাদেবের পূজো, পূর্ণ হবে মনের সকল ইচ্ছা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ পৃথিবীতে যখন আলো ছিল না, অন্ধকারও ছিল না, এমনকি দিন ছিল না, রাত্রিও ছিল না, সৎ ছিল না, অসৎ ও ছিল না- তখন কেবলমাত্র ভগবান শিবই (Shib) বিরাজ করতেন। হিন্দু দেবদেবীদের মধ্যে এক প্রধান দেবতা হলেন মহাদেব। হিন্দু মহিলারা শিবের মতো বর পাওয়ার আশায় বাবার মাথায় জল ঢালেন। বাবার আশির্বাদে তাঁদের শাফল্য প্রাপ্তি হয়। এই শিবলিঙ্গে (Shibling) দুধ ঢালার পিছনে কিন্তু যথেষ্ট বৈজ্ঞানিক এবং পৌরাণিক ব্যাখ্যা রয়েছে। বৈজ্ঞানিকরা মনে করেন, বর্ষাকালে ঘাস খাওয়ার সময় গোরু ঘাসের সাথে বিভিন্ন রকমের ব্যাক্টেরিয়া খেয়ে ফেলে। যার ফলে দুধে বিষক্রিয়া থাকার সম্ভাবনা থাকতে পারে। তাই বর্ষাকালের দুধ পান না করে শিবলিঙ্গে ঢালা হয়। শিব যেহেতু সমুদ্র মন্থনের সময় উৎপন্ন গরল নিজের কন্ঠে পান করে ছিলেন, সেই জন্যই এমনটা করা হয়।

দেবাদিদেব মহাদেব। সকল মানুষের কাছে পরম পূজনীয় এক ভগবান। তিনি খুব সামান্য ভক্তিতেই সন্তুষ্ট হয়ে যান। তাঁর ভক্তকূল সারা পৃথিবিতে ছড়িয়ে রয়েছে। শুদ্ধ মনে ভক্তি ভরে বাবার কাছে কিছু চাইলে, বাবা তাঁর ভক্তকে খালি হাতে ফিরিয়ে দেন না। বাবা সকলেরই মনস্কামনা পূর্ণ করেন। সেই কারণে বহু মানুষ শিবরাত্রির করার পাশাপাশি তারকেশ্বরে গিয়ে বাবার মাথায় জল ঢেলে বাবাকে সন্তুষ্ট করেন।ভোলেবাবাকে তাই সন্তুষ্ট করার জন্য প্রথমেই যেটা করতে হবে শুদ্ধ বস্ত্র পরিধান করতে হবে। স্নান সেরে শুদ্ধ বস্ত্র পড়ে শিবলিঙ্গের মাথা জল এবং মধু দিয়ে ভালো করে ধুয়ে দিয়ে তারপর দুধ ঢালতে হবে। এতে করে বাবার কৃপায় সংসার জীবনে সমস্যা থাকবে না, চাকরীতেও আসবে উন্নতি। মহাদেব খুব অল্পেতে খুশি। সামান্য ফুল, বেলপাতা দিয়ে বাবাকে পূজো দিলেই তিনি খুশি হয়ে যান। প্রসাদের থালায় রাখুন লাড্ডু, দই, পিটে-পুলি, আর বেশি করে চিনি দিয়ে তৈরি করা দুধ। এগুলো বাবা মহাদেবের অতি প্রিয় খাবার।

আবার বেলও কিন্তু বাবার খুব প্রিয় একটি ফল। এই বেল কিন্তু আবার পরম আয়ুর প্রতিক। তাই পরিবারেরর মানুষজনের দীর্ঘায়ু কামনা করে বাবাকে বেল ফলও অর্পন করতে পারেন। ফুলের ক্ষেত্রে বাবা কিন্তু রঙিন ফুল একদমই পছন্দ করেনা না। তবে ধুতুরা এবং আকন্দ ফুল কিন্তু বাবার খুব প্রিয়। তাই ধুতুরা এবং আকন্দ ফুলের সঙ্গে তুলসী মঞ্জরী দিয়েও বাবাকে প্রসন্ন করতে পারেন। আবার বেল ফল হওয়ায় আগে বেল গাছে যে ফুল ফোটে, সেই ফুলও মহাদেব খুব ভালোবাসেন। সেই ফুল দিয়েও বাবার চরণে দেওয়া যেতে পারে।

বেলপাতা মহাদেবের অত্যন্ত প্রিয় একটি পুস্প। তাই নিষ্ঠা ভরে, শুদ্ধ বস্ত্রে শুধুমাত্র বেল পাতা দিয়ে বাবাকে ডাকলেও বাবা সেই ভক্তের ডাকে সাড়া দেন। তবে শিবলিঙ্গ বাড়িতে বা মন্দিরে রাখলে, তাঁকে সকলের সামনে রাখা উচিত। আড়ালে এককোণে না রেখে যেখানে সহজে নিত্য পূজো সম্ভব সেখানে রাখা ভালো।

আবার মহাদেবের পূজোর সময় তাঁকে শ্বেত চন্দনের তিলক একে দিতে পারেন। শ্বেত চন্দন বাবার মাথা মাথা ঠাণ্ডা রাখবে এবং জীবনে সুখশান্তি বিরাজ করবে। তবে ভস্মও কিন্তু বাবার প্রিয় একটি জিনিস। বাবার মাথায় জল ঢালার পর মহাদেবকে উৎসর্গ করলে তিনি প্রসন্ন হন। তবে খেয়াল রাখবেন সাপ কিন্তু বাবার অলঙ্কার স্বরূপ। তাই অষ্টধাতু বা পাথর যা দিয়েই শিব লিঙ্গ বানাবেন, তাতে যেন সাপ অবশ্যই থাকে।

Related Articles