fbpx
টাইমলাইনটেক নিউজবিজ্ঞানভারত

ইসরোর তৈরী গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেম প্রথম নিয়ে আসছে শাওমি

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ চীনা স্মার্টফোন নির্মাতা শাওমি তাদের আগামী স্মার্টফোন গুলিতে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (ইসরো) দ্বারা তৈরি একটি গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেম (জিপিএস), নাভিককে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য প্রথম মোবাইল প্রস্তুতকারক হিসাবে উঠে এসেছে।প্রসেসর নির্মান সংস্থা কোয়ালকম এই খবরটির সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

নাভিক ইসরো’র ইন্ডিয়ান রিজিওনাল নেভিগেশন স্যাটেলাইট সিস্টেম (আইআরএনএসএস) এর অপারেশনাল নাম। যা একান্তই ভারতের নিজের। কিছুদিন আগেই ইসরো জানিয়েছিল স্থল, বিমান ও সামুদ্রিক নেভিগেশনে জিপিএস প্রযুক্তি সক্ষম করার জন্য আইআরএনএসএস প্রযুক্তি তৈরি করেছে। যা পরিবহন থেকে দুর্যোগ মোকাবিলা প্রত্যেক ক্ষেত্রেই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করা হচ্ছে।নাভিক দুটি উপায়ে পরিষেবা সরবরাহ করে – স্ট্যান্ডার্ড পজিশনিং সার্ভিস (এসপিএস), যা সকল ব্যবহারকারী ব্যবহার করতে পারবেন এবং রেস্ট্রিকিক্টেড পরিষেবা (আরএস), যা অনুমোদন না থাকলে ব্যবহার করা যাবে না।

ইসরোর এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, “শাওমি যেহেতু এই চিপগুলি ব্যবহার করার বিষয়ে চুক্তিতে রয়েছে তাই সংস্থাটি নাভিকের সাথে মোবাইল ফোন চালু করতে পারে,” । ইসরো আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেছে যে মোবাইল পরিষেবাগুলির মান রক্ষণাবেক্ষণকারী সংস্থা তৃতীয় প্রজন্মের অংশীদারি প্রকল্প (3 জিপিপি) স্মার্টফোনে নাভিককে অন্তর্ভুক্তির অনুমোদন দিয়েছে।

নাভিকের সাহায্যে শিওমি ভারতে ব্যবহারকারীদের সঠিক অবস্থান চিহ্নিত করার ক্ষেত্রে সঠিক পরিষেবা সরবরাহ করতে পারবে। একই সাথে নাভিকের ব্যবহার করে ব্যবহারকারীরা ভারতের সীমানা ছাড়িয়ে 1500 কিলোমিটার দূর অবধি যে কোনো অঞ্চলে থেকে তার সঠিক অবস্থান জানতে পারবে। এর ফলে শাওমির পজিশনিং সিস্টেম যে ভারতে ব্যবসারত অন্যান্য ফোন প্রস্তুতকারক সংস্থা থেকে এগিয়ে যাবে তা বলাই যায়।

Back to top button
Close