টাইমলাইনবিনোদন

জন্মের একদিন পরেই সোশ‍্যাল মিডিয়ায় ফ‍্যানপেজ! ইউভানকে টক্কর দিতে হাজির নুসরত-পুত্র ঈশান

বাংলাহান্ট ডেস্ক: টলিউডের নতুন তারকা সন্তান হাজির। নুসরত জাহান (nusrat jahan) পুত্র ঈশান (yishaan), বয়স তার মাত্র চার দিন। নতুন দুনিয়াটাকে সবে ছোট্ট ছোট্ট চোখ মেলে দেখতে শিখছে, বুঝতে শিখছে। এর মধ‍্যেই জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছে গেল সে! যার এখনো ছবিই প্রকাশ‍্যে আনা হয়নি তার নামেই কিনা আস্ত একটা ফ‍্যানপেজ তৈরি হয়ে গেল সোশ‍্যাল মিডিয়ায়! তাজ্জব ব‍্যাপারই বটে।

পেজের নাম ঈশান ফ‍্যান পেজ। নুসরত পুত্রের নামের জায়গায় লেখা ঈশান জাহান। জানা গিয়েছিল আপতত ছেলেকে নিজের পরিচয়েই বড় করতে চান নুসরত। তাঁর পিতৃপরিচয় এখনো সামনে আনেননি তিনি। তাই এই নাম। এখনো পর্যন্ত তিনটি পোস্ট রয়েছে পেজে। প্রথম পোস্টের দিন অনুযায়ী নুসরতের মা হওয়ার দিনই বানানো হয়েছে এই পেজ।


হাসপাতাল থেকে ছেলেকে নিয়ে নুসরত যশের বাড়ি ফেরার ভিডিও রয়েছে এই পেজে। ইতিমধ‍্যেই ২০০ জনের বেশি ফলোয়ার হয়ে গিয়েছে পেজে। অপরদিকে ফলোয়িং তালিকায় রয়েছেন নুসরতের ভেরিফায়েড ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট সহ একাধিক ফ‍্যানপেজ এবং মিমি চক্রবর্তী, যশ দাশগুপ্ত ও অঙ্কুশ হাজরার বেশ কয়েকটি ফ‍্যানপেজ।

এর আগে নুসরতের মা হওয়ার দিন শুভেচ্ছা জানিয়ে ইউটিউবার স‍্যান্ডি সাহা সোশ‍্যাল মিডিয়ায় লিখেছিলেন, ‘আমার বরের ছেলে হল, কিন্তু আমি মাসি হলাম’। অবশ‍্য পরে সংবাদ মাধ‍্যমের কাছে তিনি দাবি করেছিলেন খবর দেখে মনে হচ্ছে যেন যশেরই ছেলে হয়েছে। তাই মজা করে ওই মন্তব‍্য করেছেন তিনি। এরপরেই ঈশানকে আশীর্বাদ করে তিনি বলেছিলেন, ইউভানের থেকেও বড় স্টার হবে ঈশান। এখন ঈশানের ফ‍্যানপেজ থেকে স‍্যান্ডির সেই কথাটাই সত‍্যি হতে চলেছে মত নেটিজেনদের।


সোমবার ছেলেকে নিয়ে হাসপাতাল থেকে নিজের বালিগঞ্জের বাড়িতে ফিরেছেন নুসরত। তাঁকে বাড়ি ফিরিয়ে আনতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন যশ। নুসরতকে হাসপাতালে নিয়েও গিয়েছিলেন তিনি। গোটা সময়টাই ‘প্রিয় বান্ধবী’র পাশে পাশে ছিলেন তিনি। সে ওটি তেই হোক বা সন্তান জন্মের পরেই হোক না কেন।

এদিন নুসরতকে বাড়ি ফিরিয়ে আনার সময়েও যশের কোলেই দেখা গেল সদ‍্যোজাতকে। হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে গাড়িতে ওঠার সময় এবং বাড়ি পৌঁছে গাড়ি থেকে নামার সময় দুবারই যশের কোলেই ছিল নুসরতের সদ‍্যোজাত ছেলে। গাড়িতে ওঠার সময় সাংবাদিকদের ক‍্যামেরার দিকে তাকিয়ে হাসতে দেখা যায় অভিনেত্রীকে। তবে সদ‍্যোজাতর মুখ দেখাননি তাঁরা।

Related Articles