টাইমলাইনবিনোদন

ছেলের আনন্দ ধরছে না! তিন মাসের জন্মদিন উপলক্ষে ঈশানকে বেড়াতে বেরোলেন নুসরত

বাংলাহান্ট ডেস্ক: নিখিল জৈন, বিয়ে-সহবাস বিতর্ক থেকে বহুদূরে নিজের নতুন সংসার গোছানোতে ব‍্যস্ত নুসরত জাহান (nusrat jahan)। তাঁর সোশ‍্যাল মিডিয়া বার্তার কথা মানলে, অশান্তিপূর্ণ ঘর ছেড়ে যে ঘরে শান্তি রয়েছে সেখানেই প্রবেশ করেছেন তিনি। এখান থেকে আর কোত্থাও যেতে চান না। ‘স্বামী’ যশ দাশগুপ্ত ও ছেলে ঈশানকে (yishaan) নিয়েই এখন ভরা সংসার অভিনেত্রী সাংসদের।

একরত্তি ঈশানের বয়স সবে তিন মাস। এর মধ‍্যেই সেজেগুজে মায়ের সঙ্গে বেড়ু বেড়ু করতে বেরিয়ে পড়েছে সে। ছেলেকে স্ট্রোলারে শুইয়ে দিয়েছেন নুসরত। তার মুখ না দেখালেও স্ট্রোলার থেকে বেরোনো ছোট্ট ছোট্ট পায়ের নাচ দেখেই বেশ বোঝা যাচ্ছে, যে মহানন্দে রয়েছে ঈশান। এর আগে তাকে একা রেখেই মা বাবা কাশ্মীরে ঘুরতে চলে গিয়েছিল। অবশেষে সেও একটু ঘোরার সুযোগ পেয়েছে। আনন্দ আর ধরছে না!


এর আগে যদিও নুসরত জানিয়েছিলেন ছেলেকে পারতপক্ষ একা রাখেন না তিনি। যদি রাতে কাজ করেন তবে সকালটা রাখেন শুধু ঈশানের জন‍্য। একই রকম ভাবে যদি সকালে কাজ করেন তবে গোটা রাত তিনি কাটান ছেলের সঙ্গে।

অভিনেত্রীর দাবি, বয়স তিন মাস হলে কী হবে, ঈশানের বায়নাক্কা সামলাতেই নাজেহাল হয়ে যান তিনি। সংবাদ মাধ‍্যমের তরফে নুসরতের কাছে প্রশ্ন রাখা হয়েছিল, ঈশান কাকে বেশি ভালবাসে মাকে নাকি বাবাকে? সাংসদ অভিনেত্রী বলেন, তিনি জানতেন মেয়েরা বরাবরই বাবার একটু বেশি প্রিয় হয় আর ছেলেরা মায়ের। কিন্তু তাঁর ছেলেই হয়েছে উলটো। ঈশান নাকি বাবার অর্থাৎ যশের বেশি ন‍্যাওটা।


প্রসঙ্গত, দীপাবলীর দিনই অনুরাগীদের সারপ্রাইজ দিয়েছিলেন যশ নুসরত। অভিনেতার ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে দেখা মিলেছিল ছোট্ট ঈশানের। চোখ বুজে শুয়ে একরত্তি। ঘুমের মধ‍্যে মুখে আলতো হাসি। পাশে বসে ভাইকে এক দৃষ্টিতে দেখে চলেছে বড় দাদা। বয়স অবশ‍্য তারও খুব একটা বেশি নয়। দুজনের পরনেই যশ নুসরতের সঙ্গে রঙ মিলিয়ে বেগুনি রঙা পাঞ্জাবি। নিজের দুই ছেলের এই মিষ্টি মুহূর্ত লেন্সবন্দি করেছেন যশ। সঙ্গে হ‍্যাশট‍্যাগ দিয়ে লিখেছেন ‘ব্রাদারস লভ’।

Related Articles

Back to top button