fbpx
টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

এক তৃণমূল কর্মীকে মাথায় অস্ত্র দিয়ে আঘাতের অভিযোগ উঠলো অজ্ঞাতপরিচয় দূষ্কৃতিদের বিরুদ্ধে

ইন্দ্রানী সেন, বাঁকুড়া:এক তৃণমূল কর্মীকে মাথায় অস্ত্র দিয়ে আঘাতের অভিযোগ উঠলো অজ্ঞাতপরিচয় দূষ্কৃতিদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার গভীর রাতে বাঁকুড়ার সিমলাপালের মাচাতোড়া গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বাঁশি গ্রামে। এই ঘটনায় গুরুতর জখম তাপস গরাই বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

 

খবরে প্রকাশ,অন্যান্য দিনের মতো গরমের জন্য এদিন রাতেও আরো অনেকের সাথে ঐ আটচালায় এই তৃণমূল কর্মীও শুয়ে ছিলেন। সবাই যখন ঘুমিয়ে পড়েছিলেন তখন হঠাৎই কে বা কারা তাপস গরাইকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথায় আঘাত করে বলে অভিযোগ । তার চিৎকারে আটচালায় শুয়ে থাকা অন্যরা ঘুম থেকে জেগে উঠার আখেই দুষ্কৃতিরা ছুটে পালিয়ে যায়। গ্রামবাসীরা গুরুতর আহত অবস্থায় তড়িঘড়ি তাপস গরাই নামে তৃণমূল কর্মীকে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন।

বিজেপির লোকেরাই এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের। মাচাতোড়া অঞ্চল যুব তৃণমূলের সভাপতি রবিদাস চক্রবর্ত্তী বলেন, ওরা রাজনৈতিকভাবে আমাদের পেরে উঠতে না পেরে এই রাস্তা নিয়েছে। বিজেপি এলাকায় অশান্তি সৃষ্টির চেষ্টা মানুষ প্রতিহত করবেন দাবী করে তিনি বলেন, এই ঘটনার প্রতিবাদে দলে আলোচনার পর সিমলাপাল ব্লক জুড়ে প্রতিবাদ আন্দোলন সংগঠিত করা হবে।

যদিও বিজেপির পক্ষ থেকে এই ঘটনায় তাদের যুক্ত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। এবিষয়ে বিজেপির বাঁকুড়া জেলা সাংগঠনিক সভাপতি বিবেকানন্দ পাত্র বলেন, তৃণমূল এখন সব কিছুতেই বিজেপি দেখছে। তাদের দল হিংসার রাজনীতিতে বিশ্বাস করেনা। তার দাবী, তৃণমূল এখন সর্বত্রই হেরেছে। এই ঘটনা তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দের বহিঃপ্রকাশ বলে তিনি দাবী করেন।

Leave a Reply

Close
Close