টাইমলাইনবিনোদন

‘সিনেমাহল খুললেও আপনি জবলেসই থাকবেন’, ফের সোশ‍্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড অভিষেক বচ্চন

বাংলাহান্ট ডেস্ক: ফের একবার নেটিজেনদের ট্রোলের (troll) শিকার হতে হল অভিষেক বচ্চনকে (abhishek bachchan)। দীর্ঘ সাত মাস পর ১৫ অক্টোবর থেকে দেশের সমস্ত সিনেমাহল খোলার অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই সুখবর শুনেই সোশ‍্যাল মিডিয়ায় নিজের আনন্দ প্রকাশ করেছিলেন অভিষেক। আর তার জেরেই ট্রোল হতে হল অভিনেতাকে।

একজন মন্তব‍্য করেন, “আপনার খুশি হওয়ার কোনো কারন নেই। কারন সিনেমাহল খুললেও আপনি জবলেসই থাকবেন।” চুপ থাকার পাত্র নন অভিষেকও। পালটা মিষ্টি সুরে তিনি বলেছেন, ‘দুর্ভাগ‍্যজনক কিন্তু এটা সত‍্যি যে আমাদের কাজের সাফল‍্য নির্ভর করে আপনাদের মতো দর্শকদের উপর। আপনাদের পছন্দ না হলে পরে আর আমরা কাজ পাইনা। তাই যেভাবেই হোক আপনাদের মনোরঞ্জন করতে হয় আমাদের।’

আরো এক ব‍্যক্তি লেখেন, ‘শুধু নিজের টাকাটার কথাই ভাবছেন। এটা ভাবছেন না এর জন‍্য কতজন মারা যাবে।’ উত্তরে অভিষেক লেখেন, ‘হ‍্যাঁ টাকা অবশ‍্যই দরকারি। সবার জন‍্যই দরকারি। কিন্তু লক্ষ লক্ষ মানুষ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির উপরে নির্ভর করে টাকা রোজগার করে। তাদের কথা ভাবতে হবে।’

 

এর আগে করোনা আক্রান্ত হয়েও ট্রোলের সম্মুখীন হয়েছিলেন অভিষেক বচ্চন। অমিতাভকে নিয়ে কটাক্ষ করে সমালোচনার মুখে পড়তে হয় জুনিয়র বচ্চনকে। এক মহিলা টুইট করে অভিষেককে প্রশ্ন করেন, ‘আপনার বাবা তো এখন হাসপাতালে ভর্তি। এখন কার ভরসায় বসে বসে খাবেন?’

তবে দমে না গিয়ে পাল্টা উত্তরও দেন অভিষেক। তিনি লেখেন, ‘আপাতত তো দুজনে একসঙ্গে হাসপাতালে শুয়ে শুয়ে খাচ্ছি।’ ওই মহিলা ফের লেখেন, ‘তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠুন স‍্যর। সবার ভাগ‍্যে শুয়ে শুয়ে খাওয়ার সুযোগ থাকে না।’ উত্তরে অভিষেক প্রার্থনা করেন, এমন অবস্থা যেন আর কারওর পরিবারে না হয়।

Back to top button