টাইমলাইনটেক নিউজভারত

দেশজুড়ে চালু হচ্ছে স্মার্ট মিটার, জেনে নিন এই মিটারের সুবিধা অসুবিধাগুলি

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ মোদি সরকারের দ্বিতীবার ক্ষমতাইয় আসার পর ১ ফেব্রুয়ারি প্রথম পূর্ণাংগ বাজেট পেশ করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। শনিবার বাজেটে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন স্মার্ট প্রিপেড মিটার চালুর কথা ঘোষনা করেছেন। আরো জানিয়েছেন আগামী তিন বছরের মধ্যে দেশের প্রতিটী কোনায় পৌঁছে যাবে এই স্মার্ট মিটার।

স্মার্ট মিটারে আপনি বাছতে পারবে নিজের পছন্দমত বিদ্যুৎ সরবরাহ সংস্থা। একই সাথে দেশের ধুকতে থাকা বিদ্যুত সরবরাহ কারী সংস্থা গুলি থেকে কম চুরি যাবে বিদ্যুৎ।

একই সাথে পাওয়া যাবে আরো কিছু সুবিধাও

  • প্রায় বাস্তব সময়ে, আপনি কত পরিমাণ শক্তি ব্যবহার করছেন তা দেখতে পারবেন
  • গত সময়ে ও মাসে কত শক্তি ব্যবহার করা হয়েছিল এবং এর জন্য কত খরচ হয়েছিল সে ব্যাপারও জানতে পারবেন
  • আপনার বিদ্যুৎ ব্যবহার কতখানি সে ব্যাপারে ধারনা হবে
  • আপনার কত ক্রেডিট অবশিষ্ট আছে
  • আপনার জরুরি ক্রেডিটের উদ্বৃত্ত রাশির পরিমাণ কত
  • আপনার বকেয়া দেনা (যদি আপনার কিছু থাকে)
  • আপনার ক্রেডিট কমে যাচ্ছে কিনা।

একই সাথে স্মার্ট মিটারে থাকছে কতগুলি খারাপ ফলও 

  •  প্রিপেইড মিটারের টাকা রিচার্জের কেন্দ্র (ভেন্ডিং স্টেশন) চাহিদার তুলনায় অপ্রতুল হতে পারে।
  • যারা অনলাইনে টাকা দিতে পারেন না তাদের  দীর্ঘলাইনে দাঁড়িয়ে টাকা রিচার্জ করতে হতে পারে
  • মধ্যবিত্তের কাছে সব সময় টাকা থাকে না। বিদ্যুৎ চলে গেলে সঙ্গে সঙ্গে রিচার্জ করা না গেলে থাকতে হতে পারে বিদ্যুৎ হীন
  • বিদ্যুৎ সংস্থার যে সকল কর্মীরা মিটার দেখেন এবং বিল করে তাদের কাজ নাও থাকতে পারে
  • একটি অঞ্চলে গ্রাহকদের পছন্দসই সংস্থা বেছে নেওয়ার ব্যবস্থা চালু করতেও সৃষ্টি হতে পারে অনেক জটিলতা

 

Related Articles

Back to top button