কলকাতা

‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্পের ফর্ম বিলিকে কেন্দ্র করে তৃণমূল ও যুব তৃণমূলের সংঘর্ষ, একে অপরের বিরুদ্ধে দায়ের করল অভিযোগ

বাংলা হান্ট ডেস্ক: আবারও ‘গোষ্ঠী সংঘর্ষ’ তৃণমূলের অন্দরে। এবার ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্পের ফর্ম বিলি করাকে কেন্দ্র করে বচসা বাধল তৃণমূল (All India Trinamool Congress) ও যুব তৃণমূলের (Yuva Trinamool) মধ্যে। ঘটনাটি ঘটেছে মহেশতলার ৯ নম্বর ওয়ার্ডে। ঘটনায় এক যুব তৃণমূল কর্মীকে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ। যদিও পাল্টা যুব তৃণমূলের বিরুদ্ধেই অভিযোগ করেছে তৃণমূল।

ঘটনার সূত্রপাত স্থানীয় শ্যামাপ্রসাদ বালিকা বিদ্যালয়ে ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্পের ফর্ম বিলি করাকে কেন্দ্র করে। সেখানে যুব তৃণমূলের পক্ষ থেকে সেই প্রকল্পের ফর্ম বিলি করতে উদ্যোগ নেওয়া হয়। কিন্তু তৃণমূল কর্মীরা যুব তৃণমূল কর্মীদের তা করতে বাধা দেয়। যুব তৃণমূলের পক্ষ থেকে বলা হয়, যেহেতু অভিষেক ব্যানার্জী নিজে সমস্ত কর্মীকে এই ফর্ম বিলি করতে বলেছিলেন, তাই তারা ফর্ম বিলি করবেন। এই নিয়ে বাকবিতণ্ডা বেধে যায় তৃণমূলের দুই তরফের মধ্যে।

tmc get out Bidyut Das form team, on 'anti-party' charges.

এক যুব তৃণমূল কর্মীকে মারধরের অভিযোগ ওঠে স্থানীয় প্রাক্তন কাউন্সিলর তথা পৌরসভার প্রশাসক কমিটির সদস্য তাপস হালদার ও তাঁর অনুগামীদের বিরুদ্ধে। তৃণমূল দল সম্পর্কেও নাকি তিনি কুরুচিকর মন্তব্য করেন।

যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তাপস হালদার। তিনি বলেন, ‘পৌরসভার পক্ষ থেকে এই প্রকল্পের ফর্ম বিলি করা হচ্ছিল, দলীয় ভাবে নয়। সেই কারণেই যুব তৃণমূল কর্মীদের ফর্ম দিতে মানা করা হয়েছিল। আমি তৃণমূলের বহু পুরনো কর্মী। আমার কাছে যুব তৃণমূল আর তৃণমূল কংগ্রেসের কোনও পার্থক্য নেই। কিন্তু যুব তৃণমূলের এক কর্মী আমায় মারতে আসে। তখন আমার অনুগামীরা তাকে আটকায়।’ ঘটনায় দুই পক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।

Back to top button