টাইমলাইনভারত

JEE, NEET পরীক্ষা নেওয়া ‘নাসবন্দী’র মতই ঐতিহাসিক ভুল হবে, মোদি সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন বিজেপির সুব্রাহ্মণম স্বামী

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ মোদি সরকারের (modi government) বিরুদ্ধে এবার মুখ খুললেন বিজেপির সুব্রাহ্মণম স্বামী (subramanian swamy)। এই বিজেপি নেতার বক্তব্য করোনা পরিস্থিতিতে যদি JEE ও NEET পরীক্ষা নেওয়া হয় তাহলে তা ১৯৭৬ সালের ‘নাসবন্দী’র সিদ্ধান্তের মতই ঐতিহাসিক ভুল হবে। এর আগে মনীশ সিসোদিয়া, রাহুল গান্ধী, প্রিয়াঙ্কা গান্ধী, অধীর রঞ্জন চৌধুরীর মত একাধিক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব মোদি সরকারের কাছে অনুরোধ করেছিলেন পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এই পরীক্ষাগুলিকে পিছিয়ে দেওয়া হোক।

JEE mains ১ থেকে ৬ সেপ্টেম্বর এবং ১৩ সেপ্টেম্বর NEET UG অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল আগে NTA জানিয়ে দিয়েছে নতুন বিধিনিষেধ। পরীক্ষার ক্ষেত্রে একাধিক নতুন নিয়ম মানতে বাধ্য পরীক্ষার্থী ও পরীক্ষাকেন্দ্র গুলি।

পরীক্ষার্থীদের একসাথে পৌঁছানোর জন্য যাতে ভিড় না জমে যায় তাই পরীক্ষার কেন্দ্রে আলাদা আলাদা রিপোর্ট করার জন্য সময় দেওয়া হবে। সমস্ত কর্মী সদস্য এবং প্রার্থীদের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করা হবে। যদি কোনও কর্মচারী ব্যক্তি এবং প্রার্থী সাধারণ তাপমাত্রার উপরে থাকে বা করোনা আক্রান্ত হওয়ার কোনও লক্ষণ দেখা যায় তবে তাকে আলাদা ঘরে বসানো হবে।

পরীক্ষার্থীরা নিজস্ব মাস্ক, গ্লাভস, হ্যান্ড স্যানিটাইজার (৫০ মিলি) ও স্বচ্ছ জলের বোতল বহন করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এছাড়া আগের মতই প্রবেশ পত্র ও অন্যান্য নথি বহন করতে পারবে পরীক্ষার্থীরা।

মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে পরীক্ষা করার সময় লম্বা হাতল যুক্ত মেটাল ডিটেক্টর ব্যাবহার করা হবে। পরীক্ষা করার সময় খেয়াল রাখতে হবে কোনো ভাবেই যেন মেটাল ডিটেক্টর পরীক্ষার্থীর শরীরের স্পর্শ না করে।

তিন ফুটের একটি টেবলে না ছুঁয়ে পরীক্ষার্থীদের নথিপত্র পরীক্ষা করা হবে। পরীক্ষার্থীদের স্বাক্ষর করতে হবে (গ্লাভস পরে)। কোনো রকম আঙুলের ছাপ নেওয়া যাবে না। পাওয়া যাবে না জলের সুবিধা। পরীক্ষার্থীদের জলের বোতল নিয়ে আসতে হবে। পরীক্ষাকেন্দ্রে পরিদর্শকের আনাগোনাও নিয়ন্ত্রিত করা হবে।

 

Related Articles

Back to top button