সরকারি কর্মচারীদের অপেক্ষার অবসান! কালীপুজোর আগেই বাড়তে চলেছে চার শতাংশ DA

বাংলা হান্ট ডেস্ক : দীপাবলির আগে রাজ্য সরকারের (State Government) অধীনে কর্মরত কর্মচারীদের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য বড় সিদ্ধান্ত নিল সরকার। মুখ্যমন্ত্রীর সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে নেওয়া হল বড় সিদ্ধান্ত। এবার কেন্দ্রীয় সরকারের দেখানো পথেই হাঁটতে চলেছে রাজ্য সরকারও (State Government)। জানা যাচ্ছে, এবার একলাফে চার শতাংশ ডিএ (Dearness Allowance) বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

অনেকেই হয়ত জানেন যে, কিছুদিন আগেই রাজ্য সরকারের কর্মচারীদের ডিএ বাড়িয়েছে রাজস্থান সরকার। তারপর ঝাড়খন্ড সরকারের তরফেও এই একই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সূত্রের খবর, হেমন্ত সোরেনের সভাপতিত্বে রাজ্য সভার মন্ত্রীসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হয়। গত শুক্রবার রাঁচিতে অর্থ বিভাগের প্রধান সচিব অজয় কুমার সিং জানিয়েছেন, এবার থেকে রাজ্য সরকারের কর্মচারীরা ৪৬ শতাংশ ডিএ পাবেন।

   

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে এই নতুন ডিএ কার্যকর হবে ২০২৩ সালের জুলাই মাস থেকে। বর্তমান কর্মচারীদের পাশাপাশি পেনশনভোগীরাও পাবে এই সুবিধা। অন্যদিকে কর্মচারীরা তাদের এই ডিএ হাতে পাবেন নভেম্বর থেকেই। অর্থাৎ ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা ঢুকবে ডিসেম্বরের ১ তারিখে। সেই সাথে জুলাই থেকে অক্টোবরের বকেয়া ডিএ-ও মিটিয়ে দেওয়া হবে। উল্লেখ্য, দুর্গাপুজোর আগেই কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারিদের ডিএ বাড়িয়েছিল কেন্দ্র।

আরও পড়ুন : ‘দরিদ্রতা বুঝতে বই পড়তে হয়নি’, ফ্রী রেশন ইস্যুতে কংগ্রেসকে সপাটে জবাব মোদীর

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বর্তমান কর্মচারীদের পাশাপাশি পেনশনভোগীদের জন্য ডিআর-ও বাড়িয়েছে সরকার। তারাও এবার থেকে ৪৬ শতাংশ ডিআর পাবে। এই ডিআর কার্যকর হবে ২০২৩ সালের ১ জুলাই থেকে। জানিয়ে দিই কিছুদিন আগেই কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী ও পেনশনভোগীদের ডিএ বৃদ্ধি হয়েছে। এই মুহূর্তে তারা সপ্তম পে কমিশনের আওতায় ৪৬ শতাংশ ডিএ পাচ্ছেন। তারপর থেকেই দেশের বিভিন্ন রাজ্য তাদের কর্মচারীদের জন্য মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ঝাড়খণ্ড-ও নাম লেখালো সেই তালিকায়। যদিও পশ্চিমবঙ্গ সরকার ডিএ নিয়ে এখনও চুপ।

আরও পড়ুন : বিনামূল্যে রেশনের ঘোষণা করার জের, বেঁকে বসল তৃণমূল! মোদীর বিরুদ্ধে নালিশ

Dearness allowance

আজ বহুদিন ধরে কেন্দ্রীয় হারে ডিএ-র দাবি জানাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের কর্মচারীরা। যদিও নবান্ন আছে তার নিজের মতেই। বারংবার খারিজ হয়ে চলেছে আন্দোলনকারীদের আবেদন। এই রাজ্য সরকারের অধীনে কর্মরত কর্মচারীরা এখনও ষষ্ঠ বেতন কমিশনের আওতায় ছয় শতাংশ হারে ডিএ পাচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরেই এই নিয়ে মামলাও চলছে। গত ৩ নভেম্বর দশম শুনানি হয় এই মামলার। তাতে বলা হয়, ২০২৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে এই মামলার শুনানি হবে।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর