টাইমলাইনবিনোদন

মাদক মামলায় NCBর জেরার মুখে দীপিকা-সারা-শ্রদ্ধা, লাগাতার জেরায় অবশেষে বড় স্বীকারোক্তি দীপিকার!

বাংলাহান্ট ডেস্ক: মাদক (drugs) মামলায় আজ নারকোটিকস কন্ট্রোল ব‍্যুরোর (NCB) অফিসে তিনজন হেভিওয়েট তারকার হাজিরা। জেরায মুখে পড়েছেন দীপিকা পাডুকোন (deepika padukone), সারা আলি খান (sara ali khan) ও শ্রদ্ধা কাপুর (shraddha kapoor)। দীপিকাকে তাঁর ম‍্যানেজার করিশ্মার মুখোমুখি বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। জেরায় মাদক সংক্রান্ত চ‍্যাটের কথা দীপিকা স্বীকার করে নিয়েছেন বলে খবর।

সকাল ১১টা নাগাদ NCBর দফতরে পৌঁছান দীপিকা পাডুকোন। জানা গিয়েছে, দু ঘন্টা আলাদা বসিয়ে তাঁকে জেরা চালান পাঁচ সদস‍্যের তদন্তকারী অফিসারদের একটি টিম। জেরার মুখে পড়ে অভিনেত্রী স্বীকার করেন ম‍্যানেজার করিশ্মার সঙ্গে মাদক সংক্রান্ত চ‍্যাট তিনি করেছিলেন হোয়াটসঅ্যাপে। এমনকি ওই গ্রুপের অ্যাডমিন হওয়ার কথাও স্বীকার করেন দীপিকা।


তবে মাদক নেওয়ার কথা তিনি অস্বীকার করেছেন বলে খবর সংবাদ মাধ‍্যম সূত্রে।ম‍্যানেজার করিশ্মাও জানিয়েছেন, তিনি নিজে ধূমপান করেন। কিন্তু মাদক সেবন করেন না। দীপিকা খুবই স্বাস্থ‍্য সচেতন। কোনোদিনই তিনি মাদক সেবন করেননি।

সূত্রের খবর, NCBর দফতরে আসার আগে মুম্বইয়ের প্রখ‍্যাত আইনজীবীদের সঙ্গে একটি পাঁচতারা হোটেলে বৈঠক করেন দীপিকা ও রণবীর সিং। হোটেল থেকেই সোজা NCBর দফতরে আসেন তাঁরা। প্রায় ১২টা নাগাদ এসে পৌঁছান শ্রদ্ধা কাপুর।

সূত্রের খবর, জেরায় শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ছিছোঁড়ের পর একটি পার্টিতে সুশান্ত সিং রাজপুতের সঙ্গে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেখানে কোনোরকম মাদক সেবন করেননি তিনি। অপরদিকে ১১টার সময় আসার কথা থাকলেও দুপুর ১টা নাগাদ NCB দফতরে হাজির হন সারা আলি খান।

 

সমন পাওয়ার পর বৃহস্পতিবার গোয়া থেকে মা ও ভাইয়ের সঙ্গে মুম্বই এসে পৌঁছান সারা। এই সময়ে মুম্বই ছেড়ে দিল্লিতে রয়েছেন সইফ। তবে জানা গিয়েছে, গত কয়েকদিন ধরে ফোনে মেয়ের সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছেন তিনি। সব রকম আইনি সাহায‍্যও মেয়েকে করার কথা দিয়েছেন সইফ আলি খান।

Back to top button