টাইমলাইনকলকাতা

বিশ্বাসঘাতক শ্যামাপ্রসাদের নামে নয়, রামমোহনের নামে বন্দর হোক, দাবি যাদবপুরের

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ কলকাতা সফরে এসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কলকাতা বন্দরের দেড়শ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে বন্দরের নাম বদলে ডঃ শ্যমাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় বন্দর নাম রাখেন। সেই নিয়ে প্রচুর বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে বিভিন্ন মহলে। এবার রীতিমতো রাস্তায় নেমে প্রতিবাদের ঝড় তুলল যাদবপুরের পড়ুয়ারা।

rammohan Bangla Hunt Bengali News

তাদের দাবি, কলকাতা বন্দরের নাম যদি পরিবর্তন করতেই হয়, তবে সেই নাম রাজা রামমোহনের নামে করা হোক। শনিবার বিকেলে বিবাদী বাগ ছেতে পোর্ট ট্রাস্টের হেড অফিস ফেয়ারলি প্যালেস পর্যন্ত কার্যত শ্যামাপ্রসাদ এবং মোদি বিরোধী স্লোগান দিয়ে পথে নামে ছাত্রের দল। বন্দরের নাম পরিবর্তনের জন্য উদ্যোগী হওয়াতে মূলত আপত্তি রয়েছে যাদবপুরের ছাত্র-ছাত্রীদের।

১২ জানুয়ারি নরেন্দ্র মোদির পোর্ট ট্রাস্টের নাম পরিবর্তন করে ডঃ শ্যামাপ্রসাদ মুখোরপাধ্যায় বন্দর করাকে একেবারেই হালকাভাবে নিতে পারছেন না যাদপুরের পড়ুয়ারা। ২০১৮ সালে মুখ্য বন্দর কর্তৃপক্ষ আইন প্রণয়নের মাধ্যমে ইতিমধ্যেই বন্দরগুলোকে বেসরকারিকরণের অবস্থা সৃষ্টি করা হয়েছ, যা দেশের অর্ধেক মানুষই জানেন না হয়তো। এইভাবে দেশের মানুষের সম্পদকে মুনাফাধারীদের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে । কেন্দ্রীয় সরকার বেসরকারিকরণের মাধ্যমে বহু মানুষের কাজ হারাবার পরিস্থিত তৈরি করে দিচ্ছে বলে দাবি প্রতিবাদীদের। তার মধ্যে নাম পরিবর্তন করে আরও খারাপ কাজ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তাদের।

port trust 12 Bangla Hunt Bengali News

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সৈকত সিট প্রশ্ন তুলেছেন, ‘কিভাবে একজন হিন্দুত্ববাদী, বিশ্বাসঘাতকের নামে ঐতিহাসিক কলকাতা বিমানবন্দর হতে পারে?শ্যামাপ্রসাদ বাংলার নবজাগরণের মুখ তো কখনই নয়, বাংলার নবজাগরণের মুখ রাজা রামমোহন রায়। আমরা ওনার নামে এই বন্দরের নাম চাইছি।’

 

 

 

Back to top button