৬৮ কোটি খরচ করে বানিয়েছেন ভাসমান পাঁচ তারা হোটেল, জানুন কে এই গঙ্গা বিলাস ক্রুজের মালিক রাজ সিং

বাংলাহান্ট ডেস্ক : বারাণসী থেকে সোজা ডিব্রুগড় (Varanasi To Dirugarh)। ৫১ দিনের সফরে যাত্রাপথে পড়বে ৫০টিরও বেশি জনপ্রিয় স্থাপত্য। ২৭টি নদী পেরিয়ে বিলাসবহুল গঙ্গা বিলাস ক্রুজ (Ganga Vilas Cruise) ছুঁয়ে যাবে একাধিক ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট। প্রধানমন্ত্রী উদ্ধোধন করার পরেই ৩৯ জনকে যাত্রী নিয়ে রওনা দেয় এই প্রমোদতরী।

জানা গিয়েছে, এই যাত্রার জন্য খরচ পড়বে প্রায় ২০ থেকে ২৫ লক্ষ টাকা। মানুষ এই বিলাসবহুল ক্রুজ দর্শনের জন্য রীতিমতো ব্যাকুল হয়ে পড়েছে। এই সুবিশাল প্রমোদতরীর অভ্যন্তরীণ ব্যবস্থাপনা দেখতে মানুষের উৎসাহের কমতি নেই। তাই আপাতত ২০২৪ সালের মার্চ পর্যন্ত এর টিকিট বুকিং সম্পূর্ণ হয়েছে। গঙ্গা বিলাস ক্রুজের রাজকীয় যাত্রার সাথে ভারতীয় সংস্কৃতি দেখার জন্য মানুষ এতো মোটা অঙ্কের অর্থ দিতেও প্রস্তুত। এই ক্রুজে এমন সব সুবিধা রয়েছে যা আপনাকে রাজকীয় অনুভূতি দান করবে।

   

গঙ্গা ক্রুজের রাজকীয় স্টাইল নিয়ে আমরা এতো আলোচনা করছি, কিন্তু এই ক্রুজটি যিনি তৈরি করেছেন তাঁর সম্পর্কে জানাটাও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। এই ক্রুজের মালিক হলেন, রাজ সিং। এটি নির্মাণ করেছে অন্তরা লাক্সারি রিভার ক্রুজ কোম্পানি। রাজ সিং এই কোম্পানির CEO এবং প্রতিষ্ঠাতা। এই বিলাসবহুল ক্রুজটি নিয়ে একটি আলাপ আলোচনায় তিনি জানান যে, এটি দেশের অন্যান্য ক্রুজের থেকে সম্পূর্ণ আলাদা। এই ক্রুজটির ব্যবস্থাপনা করছে বেসরকারি কোম্পানি। তবে এটির কার্যকলাপ নৌপরিবহন, বন্দর ও জলপথ মন্ত্রকের অধীনে থাকা ভারতীয় দ্বীপ জলপথ কর্তৃপক্ষ দ্বারাই চালিত হচ্ছে।

রাজ সিং ১৫ বছর ধরে এই ব্যবসাযর সাথে যুক্ত। এ পর্যন্ত তাঁর কোম্পানি ৯টি বিলাসবহুল ক্রুজ তৈরি করেছে। রাজ নিজে একজন বন্যপ্রাণী বিশেষজ্ঞও বটে। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তাঁকে বক্তা হিসেবে ডাকা হয়। এই রকমই একটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়ালও। এই অনুষ্ঠানে রাজ সিং তাঁর বক্তৃতায় বলেছিলেন, “আমাদের উচিৎ জল পর্যটনের যাত্রা বৃদ্ধি করা এবং এটি বাড়ানোর জন্য, বারাণসী এবং ডিব্রুগড়ের মধ্যে একটি ক্রুজ চালানো দরকার।” কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সোনোয়াল তাঁর ভাবনাকে খুব পছন্দ করেন। তারপরেই শুরু হয়ে যায় গঙ্গা বিলাসের যাত্রা।

cruise

ক্রুজের মালিক রাজ সিং জানান, এর ডিজাইনিং ও ইন্টেরিয়র করেছেন ডাঃ অনিপূর্ণ গণিমালা। এখানকার ভারতীয় সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের কথা মাথায় রেখে এটি তৈরি করা হয়েছে। ক্রুজের ডিজাইনে ব্যবহার করা হয়েছে উজ্জ্বল ও হালকা রং। ভারতীয় সংস্কৃতির কথা মাথায় রেখে ক্রুজের শিল্পকর্মগুলিও ঠিক করা হয়েছে। তাছাড়া ক্রুজ সাজানোর ক্ষেত্রে মেক ইন ইন্ডিয়া এবং ভারতীয়ত্বের উপর ফোকাস করা হয়েছে।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর