টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

মমতা-রাহুল সিনহার পর কমিশনের র‍্যাডারে দিলীপ ঘোষ! নেওয়া হল কড়া পদক্ষেপ 

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ পঞ্চম দফা ভোটের আগে তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি। শীতলকুচির গুলিকাণ্ডে শাসক-বিরোধী সব শিবিরই এখন নির্বাচন কমিশনের র‍্যাডারে। গতকালই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্বাচনী প্রচারে ২৪ ঘণ্টার নিষেধাজ্ঞা জারি করল কমিশন। তারই প্রতিবাদে গাঁধি মুর্তির নিচে ধর্নায় বসে  মমতা। তারপর সন্ধ্যা আটটায় তাঁর উপর জারি থাকা নিষেধাজ্ঞা উঠলে জোড়া জনসভা করতে চলেছেন তিনি।

এরই মাঝে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছিল শীতলকুচি (Sitalkuchi) গুলি কাণ্ডে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) ছাড়াও বিজেপির হেভিওয়েট নেতৃত্বদের বিরুদ্ধে কেন কোনও সিদ্ধান্ত নিলনা কমিশন। সেই প্রশ্নের রেশ না কাটতেই আজ অর্থাৎ মঙ্গলবার বিজেপি নেতা রাহুল সিনহার (Rahul Sinha) নির্বাচনী প্রচারে ৪৮ ঘণ্টার নিষেধাজ্ঞা জারি করল কমিশন। মমতার থেকেও আরও কঠোর শাস্তি পেলেন তিনি।

এরপরই এবার নির্বাচন কমিশনের (Election Commission) র‍্যাডারে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। শীতলকুচি গুলি কাণ্ডে মন্তব্যের জেরে তাঁকে নোটিস দিল নির্বাচন কমিশন। আগামীকাল অর্থাৎ বুধবার সকাল ১০ টার মধ্যে দিলীপ ঘোষের জবাব তলব করেছে কমিশন।

সবমিলিয়ে  শীতলকুচি গুলিকাণ্ডে পঞ্চম দফার ভোট হয়ে উঠেছে সরগরম। প্রধানমন্ত্রী থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, নির্বাচনী প্রচারে তাঁদের এখন একে ওপরকে আক্রমণের অন্যতম বিষয় হয়ে উঠেছে গুলিকাণ্ড। ভোট বিশেষজ্ঞদের তরফে এনিয়ে নির্বাচন কমিশনের নিরপেক্ষতার প্রশ্নও তোলা হচ্ছিল। তারপরই কঠোর হতে শুরু করেছে কমিশন।

Back to top button