টাইমলাইনরাজনীতি

‘তৃণমূলের সকলেই দুর্নীতিগ্রস্ত, কী করে উনি বলছেন ১০ শতাংশ?’ মমতাকে আক্রমন দিলীপের

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ‘দুর্নীতি’ নিয়ে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। চলছে অভিযোগ-পালটা অভিযোগের পালা। এই পরিস্থিতিতে দুর্নীতির জন্য সরাসরি সিপিএমের উপরেরই দায় চাপিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী (Mamata Banerjee) । তিনি বলেছিলেন, বাংলায় ৯০ শতাংশ দুর্নীতি কমিয়ে দিয়েছে তৃণমূল। আর এই মন্তব্যকে আক্রমণ করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন তৃণমূলে প্রত্যেকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে, তার পর উনি বলছেন ১০ শতাংশ?

মেদিনীপুরের সাংসদ দিলীপ ঘোষ বলেন, “পশ্চিমবঙ্গে কোথায় দুর্নীতি নেই? বাচ্চাদের স্কুল, কলেজে ভরতি থেকে প্রাইমারি টেট কোথায় দুর্নীতি নেই? কোনও নেতা বাদ নেই। তৃণমূলের প্রত্যেকেই দুর্নীতিগ্রস্ত। তার প্রতিবাদ করায় আমাদের বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে। তারপরেও কী করে উনি বলছেন ১০ শতাংশ? শুধু নামখানা ব্লকেই ২০ লক্ষ টাকা উদ্ধার হয়েছে।

নন্দীগ্রামে ২০০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। তাদের মধ্যে ২০ জনকে সাসপেন্ড করেছেন। ২০০ নয় ২৫০০ লোক বেআইনিভাবে টাকা নিয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া ১০০০ কোটি টাকা ওদের পেটে গিয়েছে।” তৃণমূলের ‘দুর্নীতি’ ধরিয়ে দেওয়াই বিজেপির কাজ বলেই দাবি দিলীপ ঘোষের।

দিলীপ ঘোষের প্রশ্ন, ‘উনি দুর্নীতি করতে পারলে আমরা রাজনীতি করতে পারব না? ওদের দুর্নীতি ধরিয়ে দেওয়া আমাদের দায়িত্ব। সাধারণ মানুষের অধিকারের টাকা যদি কেউ মেরে দেয়, লুঠ করে, স্বজনপোষণ করে, পার্টির লোককে খাওয়ায় তার প্রতিরোধ তো বিজেপি করবেই।‘

দিলীপবাবু আরও বলেন, বলে রাখি, বুধবার কলকাতায় এক সভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বাম জমানায় পঞ্চায়েতে ১০০ শতাংশ দুর্নীতি হত। তাঁর দল ক্ষমতায় এসে ৯০ শতাংশ দুর্নীতি কমিয়ে দিয়েছে।

Back to top button