নিজের গুরু চ্যাপেলের মতোই অতি পাকা! ভারতীয় দলের অবস্থা দেখে দ্রাবিড়কে আক্রমণ ভক্তদের

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্কঃ প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে (West Indies vs India) খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে জয় দিয়ে ওডিআই সিরিজে অভিযান শুরু করেছিল রোহিত শর্মার (Rohit Sharma) নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দল (Indian Cricket Team)। কিন্তু ভারতের ব্যাটিং একেবারেই সন্তুষ্ট করতে পারেনি সমর্থকদের। মূলত বোলারদের পারফরম্যান্সেই দুর্বল ওয়েস্ট ইন্ডিজকে কোনওক্রমে হারাতে সফল হয়েছিল মেন ইন ব্লুজ। তাই সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ভারতীয় দলে কোনও পরিবর্তন থাকবে কিনা সেই নিয়ে সকলেই কৌতূহলী ছিলেন।

কিন্তু যে পরিবর্তন এদিন দেখা গেল তার জন্য একেবারেই প্রস্তুত ছিলেন না ভারতীয় সমর্থকরা। দ্বিতীয় ওডিআই ম্যাচের ভারতীয় একাদশ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে বর্তমান ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা এবং বিরাট কোহলিকে! ফলে দ্বিতীয় ওডিআই ম্যাচে ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন এই মুহূর্তে সাধারণভাবে ওডিআই ফরম্যাটে সহ অধিনায়কের দায়িত্বে থাকা হার্দিক পান্ডিয়া।

   

এদিন বিরাট কোহলির জায়গায় দলে এসেছেন অক্ষর প্যাটেল এবং অধিনায়ক রোহিত শর্মার জায়গায় দলে জায়গা দেওয়া হয়েছে সঞ্জু স্যামসনকে। কিন্তু এই সিদ্ধান্তগুলি দেখে খুব একটা সন্তুষ্ট নন ভারতীয় সমর্থকরা। অনেকেই অভিযোগ করছেন যে ভারতীয় দলকে নিয়ে ছেলে খেলা করা হচ্ছে। রাহুল দ্রাবিড় দল গঠন সংক্রান্ত এই যে সিদ্ধান্তগুলি নিচ্ছেন সেগুলোর সঙ্গে একমত নন অনেকেই। মনে করেন যে তুলনামূলক সহজ এই সিরিজে কোহলি ও রোহিতকে সম্পূর্ণ ব্যাটিং করিয়ে তাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে নেওয়ার প্রয়োজন ছিল।

দ্বিতীয় ওডিআই ম্যাচে ফের একবার ব্যাট হাতে জ্বলে উঠেছেন ঈশান কিষাণ। মাত্র ৫১ বলে নিজের ওডিআই কেরিয়ারের পঞ্চম হাফ সেঞ্চুরিটা আজ তুলে নিয়েছেন তিনি। শেষপর্যন্ত ড্রেসিংরুমে ফিরেছেন ৫৫ বলে ৫৫ রান করে। তার সঙ্গে শুভমান গিলই ওপেন করছেন। ঈশানের তুলনায় বেশ কিছুটা সংযত ভঙ্গিতে ব্যাটিং করছিলেন তিনি। কিন্তু মাত্র ৩৪ রান করে তিনি আজও ড্রেসিংরুমে ফিরেছেন। কিন্তু একটা বিষয় মনে রাখার মত সেটা হলো দুজনেই এই রান করতে গিয়ে আজকে একবার করে জীবন দান পেয়েছিলেন। তারা দুজন আউট হওয়ার একে একে ফিরে গিয়েছেন স্যামসন, অক্ষর ও হার্দিক।

এরপর দেখা যায় তিন ও চার নম্বরে ব্যাটিং করতে নেমেছেন যথাক্রমে সঞ্জু স্যামসন এবং অক্ষর প্যাটেল। পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে নেমেছেন হার্দিক পান্ডিয়া। অথচ গত ম্যাচে তিন নম্বরে ব্যাটিং করতে নেমেছিলেন সূর্যকুমার যাদব। বারবার ব্যাটিং অর্ডারে অদলবদল করার এই যে প্রক্রিয়া, ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট ও রাহুল দ্রাবিড়ের সেই নীতিটি মানতে পারছেন না সমর্থকরা। অনেকেই ব্যঙ্গ করে বলছেন ২০০৭ সালে কোচ গ্রেগ চ্যাপেল, দ্রাবিড়ের সঙ্গে পরামর্শ করে একগাদা এক্সপেরিমেন্ট করতে গিয়ে ওডিআই বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের সর্বনাশ হয়েছিল। এবার দ্রাবিড় যেন ঠিক একই পথে হাঁটছেন বলে মনে করছেন সকলের। প্রসঙ্গত ক্রিকেটপ্রেমীদের একটা অংশ আজও মনে করেন যে দ্রাবিড় সেই সময় চ্যাপেলের সঙ্গে ষড়যন্ত্র করে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে দল থেকে সরিয়ে নিজে অধিনায়কত্ব পেয়েছিলেন।

 

Avatar
Reetabrata Deb

সম্পর্কিত খবর