টাইমলাইনভারত

ব্যয় নিয়ন্ত্রণে কর্মীদের বেতন কাটতে চলেছে সরকার

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ দেশব্যাপী লকডাউনের কারনে প্রাইভেট সংস্থাগুলোর পাশাপাশি ক্ষতি গ্রস্থ হচ্ছে রাজ্য সরকার গুলিও। রাজ্যগুলি এই ২১ দিনে বিপুল পরিমাণ রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে তে সমস্ত রকম সরকারি কর্মচারী ও পেনশন ভোগীদের বেতন কাটতে চলেছে তেলেঙ্গানা সরকার।

তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও ২৯ শে মার্চ ইঙ্গিত দিয়েছিলেন বিপুল পরিমান রাজস্ব ক্ষতি হওয়ার কারনে সরকারি কর্মচারীদের বেতনে কোপ পড়তে পারে। সেই আশঙ্কা সত্যি করে প্রগতি ভবনে ৩০ শে মার্চ একটি উচ্চ পর্যালোচনা সভায় রাজ্যের আর্থিক অবস্থার পর্যালোচনা করা হয় এবং বিভিন্ন সরকারী কর্মচারীদের বেতন হ্রাস করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বিজেপি ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারী কর্মচারীদের বেতন হ্রাসকে ” তড়িঘড়ি সিদ্ধান্ত” আখ্যা দিয়ে তীব্র বিরোধিতা করেছে। তাদের মতে সঙ্কটের এই পর্যায়ে এই সিদ্ধান্ত ন্যায়সঙ্গত নয়।বিজেপি নেতা কৃষ্ণ সাগর রাও জানান, “তেলেঙ্গানা ভারতের একমাত্র রাজ্য যা রাজ্য সরকারী কর্মচারীদের বেতন কাটাতে এমন নজিরবিহীন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।”
কত পে-কাট আরোপ করা হবে?

সরকারী ঘোষনা অনুযায়ী, মুখ্যমন্ত্রী, রাজ্য মন্ত্রিপরিষদ, এমএলসি, বিধায়ক, রাজ্য কর্পোরেশন চেয়ারপারসন এবং স্থানীয় সংস্থার প্রতিনিধিদের ৭৫% কম বেতন পাবে। আইএএস, আইপিএস, আইএফএস এবং অন্যান্য কর্মকর্তাদের মতো অল ইন্ডিয়া সার্ভিস অফিসাররা তাদের বেতনের ৬০% কেটে পাবেন। সরকারী পেনশনাররা পেনশনের মাত্র 50% পাবেন।,

Related Articles

Back to top button