পুজোয় বাংলাকে দুর্দান্ত উপহার হাসিনার! বাজার ছেয়ে যাবে ৫ হাজার টন ইলিশে, কমবে দামও

বাংলাহান্ট ডেস্ক : পুজোয় বাঙালির পাতে ইলিশ (Hilsa) মাছ পরবে কিনা তা নিয়ে তৈরি হয়েছিল শঙ্কা। তবে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে এসেছে স্বস্তির খবর। পুজোর আগে বিশাল পরিমাণ ইলিশ মাছ পাঠাতে চলেছে হাসিনা সরকার। কলকাতা ফিশ ইম্পোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের আবেদনে সাড়া দিয়ে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ থেকে পাঁচ টন ইলিশ মাছ পুজোর আগেই ঢুকতে চলেছে বাংলা তথা ভারতে। বাংলাদেশের বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি ঢাকায় সচিবালয় এই কথা জানিয়েছেন বৃহস্পতিবার। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেছেন, “গত বছর পাঁচ হাজার টন ইলিশ আমরা পাঠিয়েছিলাম ভারতে। এই বছরও সেই পরিমাণ ইলিশ আমরা ভারতের রপ্তানি করব।”

   

আরোও পড়ুন : পুজোর আগে হলুদ ধাতু কেনার আজই কী সেরা সময়? কততে বিকোচ্ছে সোনা-রুপো, দেখুন

সে দেশের বাণিজ্যমন্ত্রীর কথায় এই রপ্তানির ফলে বাংলাদেশের ইলিশ বাজারে কোনও প্রভাব পড়বে না। বাংলাদেশে ইলিশের দাম যাতে সাধ্যের বাইরে না চলে যায়, তাই সেই দেশটির সরকার ইলিশ রপ্তানিতে জারি করে নিষেধাজ্ঞা। কলকাতা ফিশ ইমপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন ইলিশ আমদানির জন্য গত ১লা সেপ্টেম্বর আবেদন জানায় বাংলাদেশ হাইকমিশনারের কাছে। 

আরোও পড়ুন : Jio, Airtel, Vi-কে ফেরত দিতে হবে টাকা! বড় নির্দেশ ট্রাইয়ের, বেজায় খুশি গ্রাহকরা

এই প্রসঙ্গে সে দেশের বাণিজ্যমন্ত্রী জানান, “ইলিশ আমরা নিয়মিত পাঠাই না। কিন্তু বহু বাঙালি ইলিশ মাছ খেতে পছন্দ করেন দুর্গাপুজোয়। তবে আমরা উৎসবের মরশুমে ইলিশ পাঠিয়ে থাকি। যেমন আমের মরশুমে আম পাঠাই। তাই আমরা উৎসবের মরশুমে ইলিশ রপ্তানিতে ১৫ দিনের জন্য সম্মতি দিয়েছি।”

images 79 2

কিন্তু এপার বাংলায় দুর্গাপুজো উপলক্ষে হাসিনা সরকার কিছুটা হলেও শিথিল করেছে নিয়ম। এপার বাংলায় চিরকালই পদ্মার ইলিশের চাহিদা তুঙ্গে। তাই গোটা বছরই ইলিশ মাছের দাম থাকে চড়া। তবে বাজার বিশেষজ্ঞদের মত, বাংলাদেশ থেকে পাঁচ টন ইলিশ এদেশের বাজারে আসলে কিছুটা হলেও ঘাটতি কমবে। এরফলে ইলিশ মাছের দাম কিছুটা কমবে বলে আশা তাদের।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর