আসছে গরিবের বন্দে ভারত! সামনে এল পাঁচটি নয়া রুটের খবর, বাংলায় কোন পথে ছুটবে?

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ভারতের পরিবহন ব্যবস্থার মেরুদন্ড রেল। প্রতিদিন কোটি কোটি মানুষ যাতায়াতের মাধ্যমে হিসেবে বেছে নেন রেলকে। বর্তমানে ভারতের রেল নেটওয়ার্কের ছড়িয়ে পড়েছে দেশের প্রত্যেকটি কোণায়। প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ যাত্রী গন্তব্যে পৌঁছানোর জন্য ব্যবহার করেন রেলকে। রেলের উপর নির্ভরশীলতা প্রত্যেক দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

যাত্রীদের কথা চিন্তা করে ভারতীয় রেলওয়ে প্রতিনিয়ত নিজেদের আধুনিক করে তুলেছে। ভারতীয় রেল অতীত কালে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে যাত্রী সাচ্ছন্দ্যের কথা মাথায় রেখে। রেললাইনের আধুনিকীকরণ থেকে শুরু করে নিত্য নতুন ট্রেন লঞ্চ, তালিকাটা বেশ দীর্ঘ বলা চলে। অবশ্যই এই তালিকার শীর্ষে যে নামটি রয়েছে সেটি হল বন্দে ভারত এক্সপ্রেস।

আরোও পড়ুন : আজই হুড়মুড়িয়ে কমবে তাপমাত্রা! কোন কোন জেলায় বাড়বে শীত? জানাল আবহাওয়া দপ্তর

বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ভারতের সেমি হাই স্পিড একটি ট্রেন। আধুনিক এই ট্রেনের সুযোগ সুবিধা হার মানিয়ে দেবে বিশ্বের বহু ট্রেনকে। তবে বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের ভাড়া অন্যান্য ট্রেনের তুলনায় অপেক্ষাকৃত বেশি। এই ট্রেনে একাধিক আধুনিক সুযোগ-সুবিধা রয়েছে ঠিকই, কিন্তু অনেকেই ভাড়ার জন্য এই ট্রেনে চড়তে পারেন না।

আরোও পড়ুন : ফিরল বালেশ্বর দুর্ঘটনার স্মৃতি! অন্ধ্রের ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় বাড়ছে মৃতের সংখ্যা, শতাধিক হতাহতের আশঙ্কা

রেল সব ধরনের যাত্রীদের কথা মাথায় রেখে এবার নিয়ে এসেছেন নন এসি বন্দে ভারত এক্সপ্রেস। পুশ পুল ট্রেন বলা হচ্ছে এটিকে। এই ট্রেন ট্র্যাকে পথ চলা শুরু করতে পারে অক্টোবর মাসেই। ইতিমধ্যেই রেল এই ট্রেনের জন্য ঠিক করেছে পাঁচটি রুট। তবে সব থেকে আনন্দের কথা এই পাঁচটি রুটের মধ্যে একটি রুট রয়েছে বাংলায়।

নতুন এই বন্দে ভারত বর্তমান বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের ডিজাইনে তৈরি করা। তবে এতে থাকবে না এসি কামরা। স্লিপার ক্লাস সহ মোট ২২ টি কোচ রয়েছে এই ট্রেনে। ১২টি স্লিপার এবং ৮টি জেনারেল কামরা রয়েছে এর মধ্যে। গেজ ফ্যান হিসাবে রাখা হচ্ছে দুটি। সিসিটিভি ক্যামেরার পাশাপাশি এই ট্রেনে থাকবে ডিজিটাল ডিসপ্লে বোর্ড।

f8gaksgauaexhoh

 

চার্জিং পয়েন্ট, সামনে এবং পিছনে দুটি লোকোমোটিভ সহ অন্যান্য সুবিধা এই ট্রেনটির বৈশিষ্ট্য। সূত্রের খবর আপাতত এই ট্রেন পাটনা থেকে নিউ দিল্লি, হাওড়া থেকে নিউ দিল্লি, হায়দ্রাবাদ থেকে নিউ দিল্লি, মুম্বাই থেকে নিউ দিল্লি এবং এরনকুলাম থেকে গুয়াহাটি রুটে চলাচল শুরু করবে। এগুলির মধ্যে বাংলার জন্য রয়েছে হাওড়া থেকে নিউ দিল্লি রুট।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর