কতদূর পৌঁছল চন্দ্রযান-৩, কবে প্রবেশ করবে চাঁদের কক্ষপথে? বড়সড় আপডেট দিল ISRO

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : এতদিন ‘ঘরের’ কাছেই ছিল চন্দ্রযান ৩ (Chandrayaan 3)। তবে এবার চেনা গণ্ডি ছেড়ে বাইরে যাওয়ার পালা। সেই মাহেন্দ্রক্ষণের আর বেশি দেরি নেই। চাঁদের কক্ষপথে (Moon Orbit) পৌঁছানোর জন্য আর মাত্র ৬ দিন বাকি। পৃথিবীর চারদিকে চক্কর কাটা শেষ হওয়ার পর ট্রান্সলুনার ইঞ্জেকশনের মাধ্যমে চাঁদের কক্ষপথে ছুড়ে দেওয়া হবে তাকে।

ইসরো তরফে খবর, আগামী কাল অর্থাৎ ১ আগস্ট রাত্রি ১২ টা থেকে ১ টার সময়কে বেছে নিয়েছেন তারা। মধ্যরাতে আয়োজন করা এই ট্রান্স লুনার ইনজেঅশন টিএলআই প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ হতে ২৮ থেকে ৩১ মিনিট সময় লাগবে বলে আশা করা হচ্ছে। চন্দ্রযান-৩ এর অনবোর্ড থ্রাস্টারগুলিকে ফায়ার করা হবে যখন চন্দ্রযান-৩ পৃথিবীর সবচেয়ে কাছের বিন্দুতে (Perigee) থাকবে নাকি সবচেয়ে দূরের বিন্দুতে (Apogee) থাকবে।

চন্দ্রযান-৩ এর থ্রাস্টার চালু করে গতি বাড়ানোর চেষ্টা পৃথিবীর সবচেয়ে কাছের বিন্দু থেকে করা হবে কারণ তখন এর গতি সবচেয়ে বেশি থাকে। চন্দ্রযান-৩ বর্তমানে ১ কিমি/সেকেন্ড থেকে ১০.৩ কিমি/সেকেন্ড বেগ সহ একটি উপবৃত্তাকার কক্ষপথে পৃথিবীর চারপাশে ঘুরছে। চন্দ্রযান-৩-এর গতিবেগ পৃথিবীর নিকটতম বিন্দুতে সর্বোচ্চ (১০.৩ কিমি/সেকেন্ড) এবং পৃথিবী থেকে দূরতম বিন্দুতে সর্বনিম্ন।

পৃথিবীর কক্ষপথ থেকে চাঁদের কক্ষপথে পাঠানোর সময় এটির সর্বোচ্চ গতির প্রয়োজন হবে। তাছাড়া চাঁদের দিকে যাওয়ার সময় এর অ্যাঙ্গেল-ও বদলাতে হবে। আর এই সবটাই পৃথিবীর সবচেয়ে কাছের পয়েন্ট থেকে পরিবর্তন করা যেতে পারে। উল্লেখ্য,

ট্রান্স-লুনার ইনজেকশনের জন্য প্রায় ৫ থেকে ৬ ঘন্টা আগেই প্রস্তুতি শুরু হবে। এটি স্যাটেলাইটিকে অ্যাঙ্গেল বদলাতে সাহায্য করবে। এছাড়া থ্রাস্টার ফায়ারিংয়ের পর এর গতি আরও বাড়বে। বিশেষজ্ঞদের আশা টিএলআই-এর পরে চন্দ্রযান-৩-এর গতিবেগ পেরিজির থেকে প্রায় ০.৫ কিমি/সেকেন্ড বেশি হবে‌। উল্লেখ্য, চন্দ্রযান-৩ গড়ে 1.2 লক্ষ কিলোমিটার যেতে প্রায় ৫১ ঘন্টা সময় নেয়। যদিও পৃথিবী ও চাঁদের মধ্যে গড় দূরত্ব ৩.৮ লাখ কিমি। যদিও পৃথিবী ও চাঁদের অবস্থানের উপর এই দূরত্বের হেরফের হতে থাকে।

chandrayaan 3

ইসরোর তরফে জানানো হয়েছে, চাঁদের দক্ষিণ মেরুর কাছে অবতরণ করবে চন্দ্রযান ৩-র ল্যান্ডার এবং রোভার। ৭০ ডিগ্রি দ্রাঘিমায় অবতরণ করার কথা এই মহাকাশযানের। উল্লেখ্য, এর আগে যে তিনটি দেশ চাঁদের মাটিতে পা রেখেছে তাদের কেউই দক্ষিণ মেরুতে পৌঁছাতে পারেনি। মিশন সফল হলে ভারতই হবে সেই দেশ যে প্রথম চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে পৌঁছে যাবে।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর