ঝাড়খণ্ডের পর বাংলা! জেল খাটা প্রাক্তন TMC বিধায়কের বাড়ি সহ ৩৫ জায়গায় আয়কর হানা, শোরগোল রাজ্যে

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ রাজ্যে ফের আয়কর হানা (IT Raid)। বুধবার সকালে রানিগঞ্জের প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক সোহরাব আলির (TMC former MLA Sohrab Ali) আসানসোলের বাড়িতে হানা দিলেন আয়কর দফতরের গোয়েন্দারা। বিধায়কের স্ত্রী আসানসোল পুরনিগমের কাউন্সিলর। সোহরাব আলি ইমারতি ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত। জানা যাচ্ছে, কেবল আসানসোলই নয়, রায়গঞ্জ, কলকাতা সহ রাজ্যের ৩৫ জায়গায় আয়কর দফতরের অভিযান চলছে।

সুত্রের খবর, বুধবার ভোর পাঁচটা নাগাদ বিধায়কের বাড়িতে হানা দেয় আয়কর দফতরের আধিকারীকরা। তারপর থেকেই চলছে জোর তল্লাশি। বর্তমানে বাড়িতে বিধায়ক এবং তার কাউন্সিলর স্ত্রী দুজনেই বাড়িতে উপস্থিত রয়েছেন। রীতিমতো ম্যারাথন তল্লাশি চালাচ্ছে আয়কর দফতর। মোতায়েন রয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যাচ্ছে, প্রাক্তন বিধায়কের বার্নপুরের রহমতনগরে দুটি বাড়িতে তল্লাশি চালাচ্ছে আয়কর দফতর। প্রসঙ্গত, ২০১১ সালে তৃণমূলের টিকিটে রানিগঞ্জের বিধায়ক হন সোহরাব। ওদিকে বিশাল প্রোমোটিংেয়র ব্যবসা রয়েছে প্রাক্তন বিধায়কের।

আরও পড়ুন: সুজয়কৃষ্ণ ICU থেকে বেরোতেই মোক্ষম চাল ED-র! এবার জোর বিপাকে ‘অসুস্থ’ ‘কালীঘাটের কাকু’

২০১৫ সালে লোহার ছাঁট চুরির অভিযোগে জেল খাটতে হয়েছিল সোহরাবকে। একদিন জেলে ছিলেন সোহরাব। যদিও পরদিনই ছাড়া পেয়ে যান। তারপর থেকে আর বিধায়কের টিকিট ভাগ্যে জোটেনি তার। প্রাক্তন বিধায়কের স্ত্রী বর্তমানে আসানসোলের তৃণমূল কাউন্সিলর। এদিন সোহরাব আলির সহযোগী স্ক্র্যাপ লোহার ব্যবসায়ী ইমতিয়াজ আহমেদের বাড়িতেও তল্লাশি চালাচ্ছে আয়কর দফতর। তবে ঠিক কি কারণে এই তল্লাশি সেই নিয়ে এখনও কিছু জানা যায়নি।

tmc 1677550035454 1677550035744 1677550035744

এই সোহরাব পুরনিগমের ৮২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলরও ছিলেন। জানা যাচ্ছে, আসানসোলের বার্ণপুরের রহমত নগর এবং ধরমপুর সহ একাধিক স্থানে সম্পত্তি রয়েছে বিধায়কের। মনে করা হচ্ছে হিসাব বহির্ভূত সম্পত্তি ও কর ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগেই এই তল্লাশি চালাচ্ছে আয়কর দফতর।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর