লর্ডসে ভারতকে জয় এনে দিয়ে নিজের আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে ইতি টানলেন ঝুলন গোস্বামী

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: ‘হোম অফ ক্রিকেট’ বলে পরিচিত লর্ডসে নিজের শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচে সমান প্রাসঙ্গিকতা বজায় রেখে ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন ঝুলন গোস্বামী। ম্যাচ জিতে তাকে যোগ্য বিদায় সংবর্ধনা দিল ভারতীয় মহিলা দল। হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচে ভারত শেষ পর্যন্ত জয় পেয়েছেন ১৭ রানে। এই জয়ের ফলে তিন ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজে ইংল্যান্ডের ঘরের মাটিতে তাদেরকে ৩-০ ফলে হারালো ভারতীয় মহিলা দল।

   

Jhulan Goswami,Indian women's team,India vs England,Chakdah Express,Jhulan Goswami last wicket

আজ সিরিজের শেষ ম্যাচে টসে জিতে ভারতকে প্রথমে ব্যাটিংয়ে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক অ্যামি জোন্স। স্মৃতি মান্ধানা একটা দিক সামলে রাখলো অপর দিক থেকে পরপর উইকেট হারাতে থাকে ভারত। প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যে ব্যাটিং করে অর্ধশতরান করেন স্মৃতি।

ব্যাট হাতে এইদিন ভারতের হয়ে সবচেয়ে ভালো পারফরম্যান্স করেন দীপ্তি শর্মা। দীর্ঘক্ষণ ক্রিজে কাটিয়ে ১০৬ বলে খেলেন ৬৮ রানের একটি মূল্যবান ইনিংস। লোয়ার অর্ডারে তাকে কিছুটা সঙ্গ দেন পূজা ভাস্ত্রেকর। শেষ তিন ক্রিকেটার ঝুলন গোস্বামী, লোকা ঠাকুর এবং রাজেশ্বরী গায়কোয়াড় কোনও রান না করেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন। প্রসঙ্গত, যখন ঝুলন গোস্বামী ব্যাট করতে নামছিলেন তখন গোটা ইংল্যান্ড দল সহ দুই আম্পায়ারও তাকে গার্ড অফ অনার দিয়ে মাঠে স্বাগত জানায়। ৪৫.৪ ওভার ব্যাট করে ১৬৯ রানে অল-আউট হয়ে যায় ভারত।

এরপর ব্যাট করতে নেমে ইংল্যান্ডও ভারতের মতোই ব্যাটিং বিপর্যয়ের সম্মুখীন হয়। মাত্র ৬৫ রানের মধ্যে ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল ব্রিটিশরা। রেনুকা ঠাকুরের দুরন্ত বোলিংয়ে পর্যদুস্ত হচ্ছিল ইংল্যান্ড ব্যাটাররা। কিন্তু শেষদিকে রুখে দাঁড়িয়েছিলেন অধিনায়ক অ্যামি জোন্স (২৮), শার্লট ডিনরা (৪৭)। শেষ ৩ উইকেট ফেলতে গিয়ে বেশ বেগ পেতে হয়েছিল ভারতীয় দলকে। কিন্তু শেষপর্যন্ত বায়ুর চাপ সামলে উঠতে পারে ভারতীয় বোলাররা এবং ১৭ রানে জয় ভারত। ৪ উইকেট নেন রেণুকা ঠাকুর।

ক্যারিয়ারের মধ্যগগণে যতটা প্রাসঙ্গিক ছিলেন ঝুলন, আজকের এই ম্যাচেও তিনি ততটাই প্রাসঙ্গিক। অ্যালিস ক্যাপসির উইকেট আগেই নিয়েছিলেন। যখন ভারতের ওপর চাপ তৈরি হতে শুরু করেছে সেই সময় টানা ৭ ওভার ক্রিজে টিকে থাকা ক্যাথরিন ক্রসের উইকেট তুলে ভারতকে ম্যাচে সুবিধা করে দেন তিনি। এর শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচে তার বোলিং ফিগার দাঁড়ায় ১০-৩-৩০-২। ৩ ম্যাচের সিরিজে তার উইকেট সংখ্যাও ৩। মহিলাদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তো বটেই যদি ভাবা যায় তাহলে গোটা ভারতীয় ক্রিকেটের পরিপ্রেক্ষিতেই কিংবদন্তিদের সারিতে তিনি বেশ ওপরের দিকেই থাকবেন।

সম্পর্কিত খবর