‘ডিএ দেওয়ার মুরোদ নেই অথচ দুর্গাপুজোয় ৪০০ কোটি!’, যৌথ মঞ্চের তরফে মিলল কড়া হুঁশিয়ারি

বাংলাহান্ট ডেস্ক : বকেয়া মহার্ঘ ভাতা সহ একগুচ্ছ দাবিতে সরকারি কর্মচারীদের যৌথ মঞ্চের আন্দোলন পড়ল ২২১ দিনে। এতদিন পরেও সুরাহা না হওয়ায় এবার যৌথ মঞ্চ কলকাতার পাশাপাশি থানা ও ব্লক স্তরে আন্দোলনের ডাক দিয়েছে। যৌথ মঞ্চের পক্ষ থেকে আগামী ১০ই সেপ্টেম্বর ‘থানা চলো’ ও ১৮ই সেপ্টেম্বর “বিডিও অফিস চলো” অভিযানের ডাক দেওয়া হয়েছে। 

একই সাথে সংগ্রামী যৌথ মঞ্চ রাজ্যজুড়ে কর্মবিরতির ডাক দিয়েছে ১০ ও ১১ অক্টোবর। মঞ্চের পক্ষ থেকে রাজভবনে গণ ডেপুটেশন জমা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর। সংগ্রামী যৌথ মঞ্চের নেতৃবৃন্দ সোমবার তাদের বিস্তারিত কর্মসূচি জানিয়েছেন সংবাদ মাধ্যমকে। এমনকি তারা রাজ্যপালের সাথেও দেখা করবেন আগামী ২৪শে সেপ্টেম্বর।

   

আরোও পড়ুন : যাদবপুরের নিহত ছাত্রের নামেই হবে বগুলা গ্রামীণ হাসপাতাল! চাকরি পাবেন মাও, ঘোষণা মমতার

তাদের অভিযোগ, গত ২২১ দিন ধরে DA সহ একাধিক বিষয় নিয়ে তারা আন্দোলন চালাচ্ছেন। এতদিন কেটে গেলেও সরকারের হুঁশ নেই। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এবার ক্লাবগুলিকে দুর্গাপুজোর জন্য ৭০ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়া হবে। পাশাপাশি ছাড় দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে পুজো কমিটির বিদ্যুৎ বিলেও। 

আরোও পড়ুন : লোকনাথ বাবার ছবির পিছনে রয়েছে বড় রহস্য! জেনে নিন সেই কাহিনী

আগামী দিনে তাদের আন্দোলন আরো শক্তিশালী করা হবে। এই বিষয়টিকে হাতিয়ার করে যৌথ মঞ্চের নেতৃত্ববৃন্দ জানাচ্ছেন, “অনুদানসহ রাজ্য সরকার ৪০০ কোটি টাকা খরচ করছে এবারের পুজোয়। এই টাকা খরচের সময় টান পড়ে না সরকারের ভাঁড়ারে। যখন আমরা আমাদের প্রাপ্য মহার্ঘ ভাতা চাই তখনই শুধু শূন্য হয়ে যায় কোষাগার। আমরা নতুন কর্মসূচি নিয়েছি এর প্রতিবাদে।”

dearness allowance protest

 

এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে তৃণমূলের পক্ষ থেকে পাল্টা কেন্দ্রের বিমাতৃসুলভ আচরণের কথা টেনে আনা হয়েছে। তৃণমূলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ১০০ দিনের কাজের টাকা সহ বিভিন্ন প্রকল্পের টাকা গত দু’বছর ধরে দিল্লির সরকার আটকে রেখেছে। এই বিষয়টি নিয়ে রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা কেন নিরব সেই বিষয়ে প্রশ্ন তোলে তৃণমূল।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর