জ্যোতিপ্রিয় আউট! সুজিত বসু-পার্থ ভৌমিককে বড় দায়িত্ব দিলেন মমতা

বাংলা হান্ট ডেস্ক: মন্ত্রী পদেই বহাল রইলেন রেশন দুর্নীতি-কাণ্ডে (Ration Scam) ধৃত রাজ্যের বর্তমান বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক (Jyotipriya Mallick)। বুধবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে জ্যোতিপ্রিয় দফতর বণ্টন নিয়ে কোনওরকম আলোচনা হয়নি। আর তার থেকেই ধরে নেওয়া হচ্ছে, আপাতত মন্ত্রী পদে জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকই বহাল থাকছেন।

উল্লেখ্য, জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক গ্রেপ্তার হওয়ার পর থেকে বন দফতরের দায়িত্ব ওই দফতরেরই প্রতিমন্ত্রী বীরবাহা হাঁসদা (Birbaha Hansda) সামলাচ্ছেন। এদিন বালুর দফতর অন্য কাউকে বণ্টন না করায় আপাতত বীরবাহা হাঁসদা-ই ওই দায়িত্ব সামলাবেন।

উল্লেখ্য, পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee) গ্রেফতার হওয়ার পর তাঁকে মন্ত্রিত্ব থেকে সরিয়ে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। কিন্তু বালুর ক্ষেত্রে তার উল্টোটাই হল। মুখ্যমন্ত্রী এদিন মন্ত্রিসভার বৈঠকে বনমন্ত্রীর হয়েই ব্যাট চালান। বলেন, ‘বালুকে ফাঁসিয়ে দেওয়া হয়েছে।’ পাশাপাশি এদিন ইডি-সিবিআইয়ের (ED & CBI) তৎপরতা নিয়েও সরব হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী (West Bengal Chief Minister)। যার ফলে বোঝাই যাচ্ছে, জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের সম্পূর্ণ পাশে রয়েছে দল।

জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের মন্ত্রিত্ব যেমন কেড়ে নেওয়া হয়নি ঠিক তেমনই উত্তর ২৪ পরগনা জেলার সভাপতির পদ থেকেও সরানো হয়নি বালুকে। কিন্তু যেহেতু সামনেই লোকসভা ভোট, তাই যে যে সাংগঠনিক দায়িত্ব জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক সামলাতেন, সেই দায়িত্বগুলি উত্তর ২৪ পরগনারই অন্য মন্ত্রীদের দেওয়া হয়েছে। সুজিত বোস (Sujit Bose), রথীন ঘোষ, পার্থ ভৌমিকরা (Partha Bhowmik) বাড়তি সাংগঠনিক দায়িত্ব পেতে চলেছেন বলে সূত্রের খবর।

mamata jyotipriya

এদিকে বুধবার বিস্ফোরক মন্তব্য করেন জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। সিজিও থেকে বেরিয়ে গাড়িতে ওঠার আগে তাঁকে অভিষেককে (Abhishek Banerjee) ফের ইডির তলব করা নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। উত্তরে বনমন্ত্রী বলেন, ‘কোন বন্দ্যোপাধ্যায়’ তারপরই বলেন, ‘অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কে? আমাদের নেতা?’ তারপর একটু থেমে জ্যোতিপ্রিয় বলেন, ‘আপনাদের একটা কথা বলি শুনুন। আমি সমস্ত ব্যাপারে নির্দোষ, এটা জেনে নিন। ১৩ তারিখ আমাকে ব্যাঙ্কশাল আদালতে পেশ করা হবে। সেখানে বুঝতে পারবেন আমি অত্যন্ত ক্লিয়ার।’