খাস কলকাতায় শ্যুটআউট! মহানগরীতে খুল্লমখুল্লা চলল গুলি, তুমুল শোরগোল!

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ খাস কলকাতার বুকে এবার চলল গুলি (Kolkata Shootout)। পার্ক স্ট্রিট এবং মির্জা গালিব স্ট্রিটের সংলগ্ন একটি এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে বলে খবর। ঘটনার জেরে আহত হয়েছেন একজন। তাঁকে SSKM হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

জানা যাচ্ছে, শুক্রবার বিকেলে এই ঘটনার সূত্রপাত হয়। বাইক রেষারেষি নিয়ে যাবতীয় সমস্যা শুরু বলে খবর। সোনা এবং একলাস বেগ (২৯) নামের দুই স্থানীয় যুবক বাইক নিয়ে যাচ্ছিলেন। স্থানীয় বাসিন্দাদের কথায়, সোনার বাইককে ওভারটেক করে এগিয়ে যায় একলাসের বাইক। কেন ওভারটেক করা হল তা নিয়ে প্রথমে বচসা বাঁধে।

   

বিকেল ৪:৩০ নাগাদ এই ঘটনা ঘটে বলে খবর। এরপর সন্ধে গড়িয়ে রাত হয়। তখন বাঁধে বিপত্তি। রাত ১২টা নাগাদ উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। এরপরেই গুলিচালনার (Shootout) ঘটনা ঘটে বলে জানা যাচ্ছে। সম্পূর্ণ ঘটনার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

আরও পড়ুনঃ শনিতেই বদলাবে আবহাওয়া! গরম শেষে বৃষ্টির পূর্বাভাস, আজ ভিজবে দক্ষিণবঙ্গের এই ৬ জেলা

প্রত্যক্ষদর্শীদের কথায়, প্রায় ৭০-৮০ জনের একটি দল এসেছিল। এরপর একলাসকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। সেই গুলি গিয়ে লাগে একলাসের ডান পায়ে। গুলি চালানোর পরেই অভিযুক্তরা পালিয়ে যায় বলে দাবি করেছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। এরপর গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একলাসকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয় বাসিন্দারা।

একজন এলাকাবাসী বলেন, ‘রাতের বেলা আচমকা ৭০-৮০ জন আসেন। আসার পর কী নিয়ে ঝামেলা হল সেটা বুঝলাম হল। এরপর হঠাৎ করে গুলি চালিয়ে ওরা পালিয়ে গেল। এরপর পুলিশ আসে। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে’।

Shootout

জানা যাচ্ছে, ঘটনাস্থলে আসে পার্ক স্ট্রিট থানার পুলিশ। একলাসের ওপর গুলি চালনার এই ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত সোনা এবং তাঁর দলবল এখনও পলাতক। তাঁদের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা রুজু করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত সোনার নাম আগে থেকেই পুলিশের খাতায় ছিল বলে পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে। এলাকার নানান অপরাধমূলক কাজের সঙ্গে সে জড়িত বলে খবর। এবার গুলিচালনার মামলাতেও জড়াল তাঁর নাম!

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর