টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

‘ভালোবাসা ফিরিয়ে দাও’প্রেমিকার বাড়ির সামনে ধর্ণায় বসলো প্রেমিক

রাজীব মুখার্জী, হাওড়া- ৮ বছরের প্রেম প্রত্যাখ্যান করায় প্রেমিকার বাড়ির সামনে ধর্নায় প্রেমিকপ্রেমিকার বাড়ির সামনে ধর্নায় প্রেমিক প্রেমিক শিবনাথ রায়। অবিশ্বাস্য হলে এমনি উলট পুরাণ ঘটনা ঘটলো বাগনানের নবাসন গ্রামে। প্রেমে প্রতারণার অভিযোগ এনে রবিবার নবাসন প্রেমিকা সোমার বাড়ির সামনে ধরনায় বসে প্রেমিক যুবক শিবনাথ রায় । অভিযোগ প্রায় আট বছর ধরে তাদের দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল । কিন্তু হঠাৎ কিছুদিন যাবত সোমা শিবনাথ কে এড়িয়ে চলা শুরু করে । এমন কি তার ফোন রিসিভ করা বন্ধ করে দেয় সে । এরপর হোয়াটস্যাপ , মোবাইল নম্বর সমস্ত কিছু ব্লক করে দেয় । এতেই মাথা বিগরে যায় শিবনাথের । কারণ খুঁজতে প্রেমিকা সোমার সঙ্গে দেখা করে। তখন সে জানতে পারে যে তার অন্য কোথাও বিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করছে পরিবার । তাই সোমা সম্পর্ক রাখতে রাজি নয় ।যদিও এই বিষয়ে মানতে নারাজ প্রেমিক।

এতদিন পেপার পত্রিকা এবং খবরের চ্যানেলে দেখা গিয়েছে প্রেমে প্রত্যাখ্যিত হয়ে প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধর্নায় বসেছেন প্রেমিকা । তবে এ দিনের ঘটনা এলাকাবাসীদের চমকে দিয়েছে । সবার মুখে মুখে প্রেমিকের ধর্নার ঘটনার কথা । কান পাতলেই শনা যাচ্ছে । যদিও শিবনাথের এই অভিযোগ কে অস্বীকার করেছে প্রেমিকা সোমা।


শনিবার বাগনান থানার নবাসনে প্রেমিকা সোনালী দেঁড়ের বাড়ির সামনে ভালোবাসা ফেরানোর দাবিতে ধরনায় বসে শিবনাথ রায় নামের এক যুবক। তার দাবি গত ৮ বছর ধরে সঙ্গে তার প্রেম ছিল। সে তার দাবির সপক্ষে বেশকিছু ছবি ও চিঠি দেখায়। সম্প্রতি সোনালী তাকে আর পাত্তা দিচ্ছিল না। সে শিবনাথ কে বিয়ে করতে অসম্মতি জানায়।

সেই জন্য শিবনাথ সোনালীর বাড়ির সামনে শনিবার সকাল এগারোটা থেকে ধরনায় বসে। তারপর থেকে শিবনাথ দফায় দফায় ফেসবুক লাইফের মাধ্যমে পুরো ঘটনাটা তুলে ধরতে থাকে। নিমেষের মধ্যে নবাসন গ্রাম উৎসুক মানুষের ভিড়ে ভরে যায়।

Leave a Reply

Close
Close