টাইমলাইনভারত

প্রজাতন্ত্র দিবসের সম্মানঃ মহাবীর চক্র পাচ্ছেন গালওয়ান সংঘর্ষে শহিদ কর্নেল সন্তোষ বাবু

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ যুদ্ধক্ষেত্রে বীরত্ব প্রদর্শনে সেনাদের প্রদত্ত সম্মানের মধ্যে অন্যতম হল মহাবীর চক্র (maha vir chakra)। চীনের সঙ্গে যুদ্ধে গালওয়ান ঘাঁটিতে নিজের প্রাণ বিসর্জন দিয়েছিলেন ১৬ বিহার রেজিমেন্টের জওয়ান কর্নেল সন্তোষ বাবু (santosh babu)। এবছর দেশের প্রজাতন্ত্র দিবসে সেই বীর কর্নেল সন্তোষ বাবুকে দেওয়া হচ্ছে তাঁর সাহসিকতা এবং দেশের প্রতি কর্তব্য পরায়ণতার জন্য মরণোত্তর মহাবীর চক্র।

গত ১৫ ই জুন, পূর্ব লাদাখ সেক্টরের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা সংলগ্ন গালওয়ান ঘাঁটিতে লালা ফৌজের সঙ্গে সংঘর্ষে প্রাণ হারিয়েছিলেন ভারতের ২০ জন বীর যোদ্ধা। মায়ের কোল খালি করে দেশও মাতৃকার রক্ষার্থে তারা বীরের মত মৃত্যু বরণ করে নিয়েছিল। তাদের সেই আত্মবলিদানের কথা ভোলেনি ভারত সরকার। আজকের দিনে তাই প্রজাতন্ত্র দিবসে দেশের সেইসকল বীর যোদ্ধাদের মধ্যে থেকে বেশ কয়েকজনকে বিশেষ সম্মানে সম্মানিত করা হচ্ছে।

গালওয়ান ঘাঁটির সেই ২০ বীর যোদ্ধাদের মধ্যে থেকে সম্মানিত করা হবে- হাবিলদার কে পালানি (৮১ ফিল্ড), হাবিলদার তেজিন্দর সিং (৩ মিডিয়াম), সেপাই গুরতেজ সিং (৩ পঞ্জাব), ১৬ বিহার রেজিমেন্টের নায়েব সুবেদার নুদুরাম সোরেন এবং নায়েক দীপক সিংকে। তবে ইতিমধ্যেই তেলেঙ্গানা সরকারের পক্ষ থেকে ডেপুটি কালেক্টর পদে চাকরি পেয়েছেন জওয়ান কর্নেল সন্তোষ বাবুর স্ত্রী।

পাশাপাশি ২০২০ সালে ২০ শে এপ্রিল জম্মু ও কাশ্মীরে জঙ্গি হানায় এক জঙ্গিকে নিকেশ করে নিজেও প্রাণ হারিয়েছিলেন সুবেদার সঞ্জীব কুমার। এদিন যুদ্ধকালীন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সম্মান কীর্তি চক্রে সম্মানিত করা হবে সুবেদার সঞ্জীব কুমারকেও।

Back to top button