সবুরে সত্যিই মেওয়া ফলে! ‘DA মিটিয়ে দেবেন মুখ্যমন্ত্রী’, কবে? হয়ে গেল বিরাট ঘোষণা

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বহুদিন ধরে ডিএ (DA) ইস্যুতে তোলপাড় রাজ্য। দীর্ঘদিন যাবৎ কেন্দ্রীয় হারে মহার্ঘ ভাতার দাবিতে আন্দোলন চালাচ্ছেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা। ওদিকে দেশের শীর্ষ আদালতে চলছে মামলা। তবে সুপ্রিম কোর্টে বারংবার পিছিয়ে যাচ্ছে ডিএ (Dearness Allowance) মামলার শুনানি। সেই নিয়ে হতাশ হয়ে পড়ছেন আন্দোলনকারীদের একাংশ। এরই মধ্যে এবার সামনে এল বড় আপডেট।

da hike

কবে মিলবে বকেয়া ডিএ বা মহার্ঘ্য ভাতা?

   

সম্প্রতি নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে দলীয় নেতা- মন্ত্রীদের নিয়ে একটি মেগা বৈঠক করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। সেই বৈঠক থেকে মমতার মুখে উঠে আসে একাধিক ইস্যু। তবে ডিএ নিয়ে তিনি এবারেও নিশ্চুপ।

আরও পড়ুন: রেশন দুর্নীতিতে মাথা ঘুরে যাওয়া মোড়! বড় রহস্য ফাঁস করে দিল ED, ঘুরে গেল খেলা

তবে মুখ্যমন্ত্রী মুখ না খুললেও তৃণমূলের সরকারি কর্মচারী ফেডারেশনের নেতা প্রতাপ নায়েক এবার DA প্রসঙ্গে বড় মন্তব্য করলেন। জোর গলায় তিনি বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী সরকারি কর্মীদের পক্ষে। তিনি একবারও বলেননি যে, দেবেন না। রাজ্যের এই অর্থনৈতিক সঙ্কটের মধ্যেও তিনি ডিএ দিয়েছেন। মাননীয়া কর্মী দরদী মানুষ। ছুটি থেকে শুরু করে মাসের পয়লা তারিখে বেতন দেওয়া, সরকারি কর্মীদের পক্ষে একাধিক কাজ করেছেন।”

‘মুখ্যমন্ত্রী নিশ্চয় ডিএ দিয়ে দেবেন’

তিনি আরও বলেন, ” কেন্দ্র সরকার এখনও বাংলার পাওনা ১ লাখ ১৫ হাজার কোটি টাকা দেয়নি। তাই মুখ্যমন্ত্রী ডিএ দিতে পারছেন না। একবার কেন্দ্র সেই টাকা মিটিয়ে দিলেই মুখ্যমন্ত্রী নিশ্চয় ডিএ দিয়ে দেবেন। রাজ্য সরকারি কর্মীদের স্বার্থে প্রয়োজনে বৈঠকে বসবে।’

da salary hike

যদিও এই যুক্তি মানতে নারাজ সংগ্রামী যৌথ মঞ্চ

গত সপ্তাহেই তাদের DA আন্দোলন ৩০০ দিন অতিক্রম করেছে। এই মন্তব্যের পাল্টা সংগঠনের সদস্য ভাস্কর ঘোষ বলেন, ‘কেন্দ্রের বঞ্চনার জন্য রাজ্যের সরকারি কর্মচারীরা কেন তাদের ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত হবেন। আর ১ তারিখে বেতন সব রাজ্যই দেয়। আমাদের থেকে ছোটো রাজ্যও ন্যায্য ডিএ দিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এই সরকার তা দিতে পারে না।’

সম্পর্কিত খবর