টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

রাজ্যে প্রথম বড় মিছিল সেরে ফেললেন এআইএমআইএম

বাংলা হান্ট ডেস্ক : ইতিমধ্যেই রাজ্যের একটি নির্বাচনে তাঁদের প্রার্থী দিয়েছে আসাদউদ্দিন ওয়াইসির দল অল ইন্ডিয়া মজলিস ই ইত্তেহাদুল মুসলিমিন। এরপর একুশের বিধানসভা নির্বাচনকে টার্গেট করে ফেলেছে মিম, তাই তো আগামী বছরের শুরুতেই রাজ্যে ব্রিগেডের জনসভা করার কথা জানিয়েছিলেন আসাদ উদ্দিনের দল। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে জয়লাভের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী মিম বছরের শুরুতে ব্রিগেড সমাবেশের আগেই চলতি বছরের শেষে রাজ্যে বড়সড় মিছিল করে ফেললেও।

সোমবার এনআরসি এবং নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতায় এআইএমআইএম এর কর্মী সমর্থকরা কোচবিহার শহর জুড়ে মিছিল করল। সোমবার রেল গুমটি থেকে মিছিল শুরু হয়ে মড়া পোড়া চৌপথি তে মিছিল শেষ হয়। আর সেই মিছিলে বারবার কেন্দ্রীয় সরকারের বিরোধিতায় সুর তুলে একাধিক স্লোগান তুলেছেন দলের শীর্ষ নেতৃত্বরা।

এনআরসি এবং নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতা করে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের জন্য যাঁরা সম্পত্তি নষ্ট করছে তাদের এআইএমআইএম কখনই সমর্থন করে না বলে জানিয়েছেন মিম এর জেলা সহ সভাপতি ফারুক আবদুল্লাহ। সোমবারের পর বুধবার শহর কলকাতায় একটি প্রতিবাদ সভার আয়োজন করবে মিম এমনটাই জানানো হয়েছিল যদিও লালবাজার সূত্রে খবর এখনও অবধি কোনও অনুমতি নেওয়া হয়নি।

বাংলায় আধিপত্য বিস্তার করার জন্য সর্বতোভাবে চেষ্টা করছে আসাদউদ্দিন ওয়াইসির দল। তাই নতুন বছরে রাজ্যে আত্মপ্রকাশ করতে চাইছে মিম, তাই একটি বড়সড় ব্রিগেড সভার আয়োজন করতে চলেছে মিম, যেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা আসাদ উদ্দিন ও তাঁর ভাইয়ের।

তাই ব্রিগেডের জন্য ভারতীয় সেনাবাহিনীর কাছে অনুমতিও চাওয়া হয়েছে আসাদ উদ্দিনের পক্ষ থেকে। এমনকি পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় ছোট ছোট সভাও করা হচ্ছে মিম এর তরফে। ব্রিগেডের সভা থেকে রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে ঝাঁপিয়ে পড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে আসাদ উদ্দিনের দল এমনটাই সূত্রের খবর। কারণ এর আগেই পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে লড়াই করার কথা জানিয়েছিল মিম।

Back to top button