fbpx
টাইমলাইনভারত

প্লাস্টিকমুক্ত দেশ গড়তে বড়োসড়ো সিদ্ধান্ত নিয়ে টুইট করলেন মোদী

বাংলা হান্ট ডেস্ক: প্লাস্টিকমুক্ত দেশ গড়ায় বদ্ধপরিকর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আগামী ২ অক্টোবর থেকে গোটা দেশে নিষিদ্ধ হতে চলেছে ছয় ধরনের প্লাস্টিকজাত দ্রব্য। গোটা দেশকেই প্লাস্টিক মুক্ত করতে চান মোদি তাই তাঁর এই তীব্র পরিকল্পনা। শুধু তাই নয় ইতিমধ্যেই নরেন্দ্র মোদী তাঁর ‘মন কী বাত’ অনুষ্ঠানে দেশকে প্লাস্টিকমুক্ত করার আন্দোলনে আহ্বান জানিয়েছেন সমগ্র দেশবাসীকে।

সোমবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ট্যুইটে লেখেন, ‘অদূর ভবিষ্যতে দেশে সিঙ্গল ইউস প্লাস্টিক নিষিদ্ধ করা হবে ৷ ভবিষ্যতে পুনর্ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিকের ব্যবহারের নির্দেশ ৷ দেশে শীঘ্রই প্লাস্টিক নিয়ে নয়া নিয়ম চালু হবে ৷ গোটা বিশ্বেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত ৷’

প্রধানমন্ত্রী নয়া উদ্যোগ দেশবাসী নয়, দেশের সমস্ত পৌরসভাগুলির পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ও বিভিন্ন কর্পোরেট সংস্থাগুলিকেও পাশে থাকার আবেদন জানিয়েছেন তিনি। ২ অক্টোবর মহাত্মা গান্ধীর জন্মদিনকেই দেশকে প্লাস্টিক দূষণের হাত থেকে রক্ষা করার প্রথম পদক্ষেপ নেবেন নরেন্দ্র মোদী।

ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী সমগ্র দেশবাসীকে আহ্বান জানিয়েছেন ২০২২ সালের মধ্যে ভারতকে ‘প্লাস্টিকমুক্ত দেশ’ হিসাবে গড়ার লক্ষ্য পূরণের খাতিরে। ৬ ধরনের প্লাস্টিকজাত দ্রব্য নিষিদ্ধ হতে চলেছে ২ অক্টোবর থেকে, এগুলির মধ্যে রয়েছে প্লাস্টিকের কাপ, প্লেট, স্ট্র, প্লাস্টিকের ব্যাগ বা প্যাকেট, ছোট প্লাস্টিকের বোতল এবং নানা আকারের প্লাস্টিকের পাউচ বা স্যাশে। সূত্রে খবর, এই ছ’রকমের প্লাস্টিক দ্রব্য উৎপাদন, ব্যবহার ও আমদানি— সমস্তটাই নিষিদ্ধ করা হচ্ছে।

পরিসংখ্যান ও সমীক্ষা অনুযায়ী, প্রতি বছর ভারতে প্লাস্টিকের বর্জ্য তৈরি হয় প্রায় ১ কোটি ৪০ লক্ষ টন। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, প্রধানমন্ত্রীর এই উদ্যোগ বাস্তবায়িত হলে আগামী দু’বছরের মধ্যে প্লাস্টিকের বর্জ্যের পরিমাণ অন্তত ১০ শতাংশ কমানো যাবে।

Leave a Reply

Close
Close