টাইমলাইনভারত

NEET, JEE পরীক্ষা স্থগিত রাখার অনুরোধ, প্রধানমন্ত্রী মোদীকে ফোন ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েকের

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ JEE (JEE Main) এবং NEET (National Eligibility cum Entrance Test) পরীক্ষা নিয়ে চলতে থাকা তরজার মধ্যে মুখ খুললেন নবীন পট্টনায়েক (Naveen Patnaik)। করোনাকালে বহুবার সংবাদের শিরোনামে উঠে এসেছে এই পরীক্ষার খবর। কবে হবে পরীক্ষা, এই নিয়ে কেন্দ্র রাজ্য সংঘাত তুঙ্গে। সম্প্রতি JEE এবং NEET পরীক্ষার সম্ভাব্য দিন ঘোষণা করার পর থেকেই, আবারও এই বিষয়ে তরজা তুঙ্গে।

JEE Main এবং NEET পরীক্ষার বিপক্ষে পট্টনায়েক
বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের পর এবার NEET এবং JEE পরীক্ষা স্থগিত করার অনুরোধ করলেন ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ফোন করে এই আবেদন জানালেন ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী। মঙ্গলবার ২৫ শে আগস্ট কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রনালয়ে একটি চিঠি লিখে তিনি এই অনুরোধ করেছেন।

পট্টনায়েকের আবেদন
চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে আমি NEET এবং JEE পরীক্ষা স্থগিত করার অনুরোধ করছি। ওড়িশায় JEE Main-এ প্রায় ৫০ হাজার এবং NEET-এ প্রায় ৪০ হাজার পরীক্ষার্থী রয়েছে। কিন্তু এদিকে জাতীয় পরীক্ষা সংস্থা রাজ্যের মাত্র ৭ টি শহরে পরীক্ষা সেন্টার করেছে। এই পরিস্থিতিতে বাচ্চাদের পরীক্ষা কেন্দ্র যাওয়া একদমই নিরাপদ নয়’।

তিনি আরও জানান, এছাড়াও মহামারির কারণে বহু অঞ্চলে লকডাউন চলছে, যাতায়াত ব্যবস্থা এখনও স্বাভাবিক করা সম্ভব হয়নি। আর আমাদের এখানে অনেক পরীক্ষার্থীদের দূর দূর থেকে পরীক্ষা সেন্টারে আসতে হয়। তাই আমি পরীক্ষা স্থগিত রাখার অনুরোধ করছি। যদি ৩০ টি জেলাতেই পরীক্ষা কেন্দ্র স্থাপন করা সম্ভব হয় এবং বাচ্চাদের যাতায়াতে বেশি সময় না লাগে, তাহলে ভেবে দেখা যেতে পারে’।

JEE Main এবং NEET পরীক্ষার বিপক্ষে আরও ৭ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী
JEE Main এবং NEET পরীক্ষার দিন নির্ধারণ করার পর থেকেই পশ্চিমবাংলা সহ আরও ৬ টি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর উপস্থিতিতে সম্প্রতি এক ভার্চুয়াল বৈঠক সম্পন্ন করেন। এনারা সকলেই JEE Main এবং NEET পরীক্ষা স্থগিতের পক্ষে রয়েছেন।

Related Articles

Back to top button