টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিশেষ

সবুজায়নের জন্য অভিনব উদ্যোগ নব দম্পতির, বিয়েতে আমন্ত্রিতদের দিলেন ‘গাছের চারা”

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বিশ্ব থেকে হারিয়ে যাচ্ছে সবুজ। দিনদিন বাড়ছে পারদ। গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ের জেরে গলছে অ্যান্টার্কটিকা, গ্রিনল্যান্ডের বরফ। চিন্তা করছে সবাই। কিন্তু এগোচ্ছে কজন? প্রতিটি দেশেই গাছ ফিরিয়ে দিতে নেওয়া হচ্ছে নানান উদ্যোগ। বেশ সাড়াও মিলছে সেসব উদ্যোগে। কিন্তু এটুকুতেই হবেনা। এগিয়ে আসতে হবে বিশ্বের প্রতিটি মানুষকেই। নাহলে ঘোর বিপদ। অগাধ জলরাশির তলায় তলিয়ে যাবে গোটা বিশ্ব।

আর এহেন চিন্তা ম্থায় নিয়ে এক অভিনব উদ্যোগ নিল নব দম্পতি। বিয়েতে আমন্ত্রিত ব্যক্তিদের রিটার্ন গিফট হিসেবে তাঁরা তুলে দিল গাছের চারা। নব দম্পতির এই উদ্যোগের প্রশংসা হচ্ছে চারিদিকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটাগরিকদের মনও জয় করে নিয়েছে নব দম্পতি।

বীরভূম জেলার নলহাটির শ্রীরামপুরের বাসিন্দা শুভজিৎ মণ্ডল ও তুলিকা মণ্ডল ২ ফেব্রুয়ারি সাত পাকে বাধা পড়ে। তাঁরা দুজনেই পরিবেশ, গাছপালাকে খুবই ভালোবাসে। আর সেই কারণে তাঁরা এক অভিনব উদ্যোগ নেয়। বিয়ের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিতদের হাতে তাঁরা চারা গাছ তুলে পরিবেশ রক্ষার দায়িত্ব নেয়।

তুলিকা মণ্ডলের বোন মনিকা মণ্ডল ফেসবুকে একটি পোস্ট করে লেখেন, ‘বিয়েবাড়িতে গিফট হিসেবে গাছের চারা দেওয়াটা শুধু উপহারই নয়,এর পেছনে একটা সামাজিক বার্তাও বহন করে৷ যেভাবে একটু একটু করে সবুজ ধ্বংসের পথে এগোচ্ছে সেই তুলনায় চারা রোপণ করা হয় না৷ উন্নয়ন ও নগরায়নের জাঁতাকলে হারিয়ে যাচ্ছে সবুজ৷ তাই আজকে আমাদের এই উদ্যোগ৷পরিবেশ রক্ষায় মানুষকে এগিয়ে আসার বার্তা দিতেই আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রয়াস৷ বিয়েবাড়ি হল এমন একটি জায়গা যেখানে একসঙ্গে অনেক বেশি মানুষকে পাওয়া যায়৷ তাই বিয়েকেই এই পরিবেশ বান্ধব কাজের জন্য আদর্শ জায়গা হিসেবে বেছে নিয়েছি আমরা।”

শুভজিৎ আর তুলিকার এই অভিনব উদ্যোগের প্রশংসা হচ্ছে নেট দুনিয়ায়। অনেকেই তাঁদের মতো করে বাড়িতে আমন্ত্রিতদের গাছের চারা দেওয়ার ইচ্ছেও প্রকাশ করেছে। নব দম্পতির আশা, সবাই উদ্যোগ নিলে আগামী দিনে পৃথিবীকে আবারও পুরনো গরিমা ফিরিয়ে দেওয়া সম্ভব হবে।

 

Back to top button