রেস্তোরাঁ থেকে হিন্দু মিছিলের উপর ছোঁড়া হয় পাথর! এবার সেই চারতলা বিল্ডিং গুঁড়িয়ে দিল হরিয়ানা সরকার

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : অগ্নিগর্ভ নুহ (Nuh Violence)! পরিস্থিতি সামলাতে কড়া পদক্ষেপ সরকারের। শনিবার হরিয়ানার (Haryana) খট্টর সরকার বুলডোজার চালিয়ে নুহের সাহারা ফ্যামিলি রেস্তোরাঁকে গুঁড়িয়ে দিল। গত ৩১ জুলাই মেডিকেল চকে অবস্থিত এই রেস্তোঁরা থেকেই হিন্দু মিছিলের উপর পাথর ছোঁড়া হয়। নুহ সহিংসতার কিছু ভিডিও ও ফুটেজ সামনে এসেছে, সেই ফুটেজে এখান থেকে পাথর ছোঁড়াও দৃশ্য পরিষ্কার দেখা যাচ্ছে। নুহের দাঙ্গা শুরু হয় এখান থেকেই।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, সাহারা ফ্যামিলি রেস্তোরাঁর চারতলার তিনতলা থেকেই পাথর ছোড়া হচ্ছে। রেস্টুরেন্টের আশপাশের ভবন ও দোকানের ছাদ থেকেও মিছিলের উপর পাথর ছোঁড়া হয়। তবে প্রশাসনের দাবি, অবৈধভাবে এই ভবনটি নির্মাণ করা হয়েছে। ২০১৬ সাল থেকে এর মালিককে নোটিশ দেওয়া হচ্ছে, কিন্তু তারা সাড়া দিচ্ছে না। বাধ্য হয়ে এটি গুঁড়িয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কর্তব্যরত ​​ম্যাজিস্ট্রেট ভিনেশ কুমার বলেন, এই রেস্তোরাঁ থেকেই পাথর ছোঁড়া হয়। এই ভবনটিকেই সেদিন হিংসার কেন্দ্র হিসাবে দাঙ্গাকারীরা ব্যবহার করেছিল। তবে এই ভবনটি অবৈধভাবে তৈরি। এ কারণেই এই ভবনটি ভেঙে ফেলা হচ্ছে। তিনি বলেন, এ ধরনের আরও ভবন শনাক্ত করা হয়েছে, সেগুলোও একইভাবে ভেঙে ফেলা হবে।

nuh

এই পদক্ষেপের সময়, এসডিএম নোয়া অশ্বানি কুমার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রেনু সোগান, নায়েব তহসিলদার সহ বিপুল সংখ্যক পুলিস বাহিনী মোতায়েন করা হয়। অপরদিকে, হিন্দু সমাজের মহাপঞ্চায়েতের কথা মাথায় রেখে আজ গুরুগ্রামের তিঘর গ্রামে মোতায়েন করা হয় ভারী পুলিস বাহিনীও।

রবিবারও জেলা প্রশাসনের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। হরিয়ানা পুলিস সেই সমস্ত অবৈধ নির্মাণগুলি ভেঙে ফেলছে যেখান থেকে মিছিলের সময় পুলিস বাহিনী এবং ভক্তদের উপর পাথর ছোঁড়া হয়। সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, এ পর্যন্ত ৬০০টিরও বেশি অবৈধ নির্মাণ ভেঙে ফেলা হয়েছে।

Avatar
Sudipto

সম্পর্কিত খবর