প্রাথমিক দুর্নীতিতে ‘এই’ এক ক্লাব থেকেই যাবতীয় টাকার লেনদেন! ED-র দাবিতে তোলপাড়

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ নিয়োগ দুর্নীতি (Recruitment scam) মামলায় তোলপাড় রাজ্য! নিত্যদিন উঠে আসছে বিস্ফোরক সব তথ্য। আর এবার প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় নয়া মোড়। নিয়োগ দুর্নীতিতে নিবিড় যোগ রয়েছে এক ক্লাবের। শুক্রবার আদালতে এমনই দাবি করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।

শিক্ষক কেলেঙ্কারির অভিযোগে গতবছর থেকে জেলবন্দি বহু নেতা-মন্ত্রী, বিধায়ক সহ শিক্ষা দফতরের একাধিক আধিকারিক। প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের প্রাক্তন সভাপতি তথা তৃণমূল বিধায়ক মানিক ভট্টাচার্য (Manik Bhattacharya) ও তার ছেলে শৌভিক ভট্টাচার্যও (Souvik Bhattacharya) বর্তমানে কারাগারে।

এই শৌভিককে নিয়েই তদন্তকারী সংস্থার দাবি, একটি ক্লাব থেকে টাকার লেনদেন করতেন মানিক ভট্টাচার্যর ছেলে শৌভিক। পাশাপাশি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা আদালতে জানায়, রাজ্যের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তার সরাসরি যোগ রয়েছে।

আরও পড়ুন: ‘কোর্টের সঙ্গে খেলা হচ্ছে?’ CID-কে ভর্ৎসনা! রাজ্যকে ৫০,০০,০০০ টাকা জরিমানা বিচারপতির

high court

অন্যদিকে ইডির বিরোধীতা করে মানিকের ছেলের আইনজীবী। তিনি বলেন, ওই তথ্যে আপত্তি জানিয়ে হলফনামা দিতে চান তার মক্কেল শৌভিক ভট্টাচার্য। সেই দাবিতে সাড়া দিয়ে হলফনামা জমা দেওয়ার আরজি মঞ্জুর করেছেন বিচারপতি ঘোষ। আগামী সোমবার এই মামলার পরবর্তী শুনানি রয়েছে।

আরও পড়ুন: মমতার এক ঘোষণায় মহা বিপাকে রাজ্যের সমস্ত BJP বিধায়কেরা! এবার কী করবেন শুভেন্দু?

নিয়োগ মামলায় গত ফেব্রুয়ারি মাসে মানিক ভট্টাচার্যের স্ত্রী শতরূপা ভট্টাচার্য ও ছেলে শৌভিককে হেফাজতে নেয় ইডি। পরে তাদের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। এরই মধ্যে ৭ অগস্ট শতরূপা শর্তসাপেক্ষ জামিন পেয়ে যান। এরপর জামিনের আরজি নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হন মানিক পুত্র। যদিও গতকাল প্রাক্তন পর্ষদ সভাপতির ছেলেকে জামিন দেয় নি আদালত।