বিপুল টাকার লেনদেন! বাকিবুর-কাণ্ডে উঠে এল রাজ্যের এক নতুন মন্ত্রীর নাম

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ রেশন দুর্নীতি (Ration Scam) নিয়ে তোলপাড় রাজ্য। সম্প্রতি এই দুর্নীতিকাণ্ডে ইডির হাতে গ্রেফতার হয়েছে মন্ত্রী ‘ঘনিষ্ঠ’ বাকিবুর রহমান নামের এক ব্যবসায়ী। আর বিজনেসম্যান বাকিবুরের গ্রেফতারির পর থেকেই দেশ-বিদেশ একের পর এক বিস্ফোরক তথ্য উঠে আসছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (ED) হাতে। যা দেখে ভিরমি খাচ্ছে খোদ ইডি।

তদন্ত ও টানা জিজ্ঞাসাবাদের পর বাকিবুরের (Bakibur Rahaman) সূত্র ধরেই রাজ্যের প্রাক্তন খাদ্যমন্ত্রী তথা বর্তমান বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক ওরফে বালুকে গ্রেফতার করেছে ইডি। তবে এখানেই কী শেষ? কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সূত্রে খবর, শুধু জ্যোতিপ্রিয়ই নন বাকিবুরের সাথে রাজ্যের আরও এক মন্ত্রীর ‘ঘনিষ্ঠতার’ প্রাথমিক তথ্য তাদের হাতে এসেছে।

ইডির অভিযোগ, দুর্নীতির টাকায় একের পর এক সম্পত্তি কিনেছিলেন বাকিবুর। জমি, হোটেল, পানশালায় ছিল বিনিয়োগ। বেআইনিভাবে এ সমস্ত জমি কিনতে ওই মন্ত্রীর সঙ্গে টাকার লেনদেন হয়েছে বাকিবুরের। প্রাথমিক তদন্তে এমনটাই দাবি ইডির।

আরও পড়ুন: ‘বাড়ির ভিত খুব নড়বড়ে..’, আগামীকাল আদালতে কী কী প্রমাণ দেবে ED? চরম চাপে বালু?

ইডি সূত্রে দাবি ওই মন্ত্রীর সাথেও বাকিবুরের নিয়মিত যোগাযোগ ছিল। মন্ত্রীর দফতরেও ধৃত বাকিবুরের অবাধ যাতায়াত ছিল। তদন্তকারীদের অভিযোগ, বালুর সাথে জোট বেঁধে চলত রেশন দুর্নীতি। আর সেই দুর্নীতির কোটি কোটি কালো টাকা অপর মন্ত্রীর সহায়তায় বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করতেন বাকিবুর।

ed bakibur

সূত্রের খবর, জ্যোতিপ্রিয়র এক আপ্ত সহায়কের মোবাইলের থেকে এই বিষয়ে একাধিক তথ্য মিলেছে। বাকিবুর ওই মন্ত্রী ও প্রভাবশালীদের সঙ্গে ওই আপ্ত সহায়কের ফোন থেকেই জ্যোতিপ্রিয় বেশিরভাগ সময় কথা বলতেন বলে ইডি সূত্রে দাবি। এ বার এই মন্ত্রী কে? বাকিবুরের সঙ্গে তার কী সম্পর্ক, সময় এলেই এসব জানা যাবে।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর