টাইমলাইনবিনোদন

কাউকে কিছু না জানিয়ে রাতের অন্ধকারেই অ্যাপার্টমেন্ট ছেড়ে সপরিবারে পালান রিয়া!

বাংলাহান্ট ডেস্ক: এখনও বেপাত্তা রিয়া চক্রবর্তী (rhea chakraborty)। সুশান্ত সিং রাজপুতের বাবা কে কে সিং পাটনা থানায় রিয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর (FIR) দায়েরের পরদিনই মুম্বই রওনা দেয় বিহার পুলিস। কিন্তু রিয়ার ঠিকানায় গিয়ে সেখানে কাউকেই পায়নি তারা। রাতারাতি রিয়ার পরিবার অ্যাপার্টমেন্ট থেকে উধাও হয়ে যায়।
সংবাদ মাধ‍্যম সূত্রে খবর, এই প্রসঙ্গে রিয়ার অ্যাপার্টমেন্টের সুপারভাইজার পুলিসের কাছে তার বয়ান দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, এফআইআর দায়েরের পরদিনই অ্যাপার্টমেন্ট ছেড়ে চলে গিয়েছেন অভিনেত্রী। ওই অ্যাপার্টমেন্টে বাবা মা ও ভাইয়ের সঙ্গে থাকতেন রিয়া। সুপারভাইজারের দাবি কিছুদিন আগেই রাতে একটি বড় সুটকেস ঐ একটি প‍্যাকেট নিয়ে তড়িঘড়ি ওই অ্যাপার্টমেন্ট ছেড়ে চলে যান রিয়া। একটি নীল গাড়িতে তাঁরা অ্যাপার্টমেন্ট ছাড়েন বলেও জানিয়েছেন সুপারভাইজার।


সম্প্রতি একটি ভিডিও বার্তা শেয়ার করেছেন রিয়া চক্রবর্তী। সেখানে চোখে জল নিয়ে রিয়াকে বলতে শোনা যায় সত‍্যিটা সামনে আসবেই। রিয়া বলেন, ‘ঈশ্বর ও দেশের বিচারব‍্যবস্থার উপর যথেষ্ট ভরসা রয়েছে আমার। যদিও সোশ‍্যাল মিডিয়ায় আমাকে নিয়ে অনেক খারাপ কথা ছড়ানো হচ্ছে। আমি বিশ্বাস করি আমি সুবিচার পাব। সত‍্যমেব জয়তে। সত‍্যিটা সামনে আসবেই।’ কিন্তু কোন অজ্ঞাত জায়গা থেকে এই ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে তা জানা যায়নি। বিহার পুলিসের তরফে রিয়াকে ফোনেও পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানা গিয়েছে।
কিছুদিন আগেই সুশান্তের দিদি মিতু বিহার পুলিসকে জানান, বেশ কয়েক মাস আগে সুশান্তের বাড়ির পরিচারক তাঁকে অভিযোগ রিয়া কালা যাদু করেন সুশান্তের উপর। শুধু তাই নয়, অভিনেতাকে ভূতের ভয়ও দেখানো হত বলে অভিযোগ উঠেছে রিয়ার বিরুদ্ধে। সুশান্তের আগের ফ্ল‍্যাটে ভূত রয়েছে, এমনই দাবি করে তাঁকে ওই ফ্ল‍্যাট ছাড়তে বাধ‍্য করেন রিয়া। চার্টার রোডের ফ্ল‍্যাটে সুশান্ত ও রিয়ার সঙ্গে রিয়ার মাও এসে থাকতেন বলে জানা গিয়েছে।

Related Articles

Back to top button