সৌদিতে আবার দুর্দান্ত গোল করলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো! ৬৫০০ কিমি দূরে উঠলো তার নামের জয়ধ্বনি

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্কঃ “ভিভা রোনাল্ডো! / ভিভা রোনাল্ডো! / রানিং ডাউন দ্য উইং, / হেয়ার ইউনাইটেড সিং, / ভিভা রোনাল্ডো……”
আজ থেকে প্রায় ২০ বছর আগে যখন ম্যান ইউ-তে (Manchester United) সদ্য পা রেখেছেন তরুণ পর্তুগিজ উইঙ্গার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো (Cristiano Ronaldo), তখন তার ড্রিবলিং, গতি, উইং ধরে দৌড় দেখে মুগ্ধ হয়ে এই গান বেঁধেছিলেন ইউনাইটেড সমর্থকরা। বল নিয়ে সিআরসেভেনের স্টেপ ওভারের তালে তালে সমর্থকরা ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে এই গান ধরতেন। তারপর অনেক জল গড়িয়ে গিয়েছে ইরওয়েল নদী বেয়ে। ম্যানচেস্টারের লাল জার্সি গায়ে রোনাল্ডো ক্লাবকে সমস্ত সম্ভাব্য ট্রফি জিতিয়েছেন, নিজে সমস্ত সম্ভাব্য ব্যক্তিগত পুরস্কার জিতে তারপর রিয়াল মাদ্রিদে সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলারের খেতাব অর্জন করে জুভেন্টাস হয়ে ২০২১ সালে ফের ফিরেছিলেন ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে।

তার প্রত্যাবর্তনের পর শুরুটা হয়েছিল স্বপ্নের মত। প্রায় প্রতি মাসেই ম্যাচ জেতানো গোল করছিলেন রোনাল্ডো। কিন্তু ডিফেন্সের দুর্বলতায় এবং রোনাল্ডোর সঙ্গে থাকা বাকি ফরোয়ার্ডদের ধারাবাহিকতার অভাবে ধীরে ধীরে ২০২১-২২ মরশুমে দলের ভাঙাচোরা চেহারাটা প্রকাশ্যে চলে আসে। রোনাল্ডো ২৪ গোল করলেও ইউনাইটেড কোনও সাফল্য পায়নি। এরপর ২০২২-২৩ মরশুমে ডাচ কোচ এরিখ টেন হাগ আয়াক্স আমস্টারডাম ছেড়ে ম্যান ইউনাইটেডের দায়িত্ব নেয়।

   

পরিস্থিতি এখান থেকে নাটকীয়ভাবে পরিবর্তিত হতে শুরু করে। ব্যক্তিগত জীবনে একাধিক সমস্যার কারণে মরসুমের শুরুতে রোনাল্ডোর দলের সঙ্গে যোগ দিতে দেরি হয় এবং নিজের সেরা ছন্দ তিনি খুঁজে পাননি। এই সময় মৌখিকভাবে তার পাশে দাঁড়ালেও টেন হাগ প্রায় প্রতিটি লিগ ম্যাচে তাকে বেঞ্চে বসিয়ে রেখে স্পষ্ট করে দিচ্ছিলেন যে তার পরিকল্পনায় পর্তুগিজ তারকা আসছেন না। এর প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছিল রোনাল্ডোর ব্যবহারেও। শেষপর্যন্ত নাটকীয়ভাবে তিনি ২০২২ বিশ্বকাপের আগে একটি বিস্ফোরক সাক্ষাৎকার দেন এবং সেখানে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিভিন্ন অব্যবস্থা নিয়ে খোলাখুলি মন্তব্য করে ক্লাব ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন।

এই সময় অনেক ইউনাইটেড সমর্থক তাকেই দলের সবচেয়ে বড় সমস্যা বলে অভিহিত করেছিল। ওই মরশুমে রোনাল্ডো যাওয়ার পর ইউনাইটেড লিগ কাপ ট্রফি জেতে, লিগ টেবিলেও তুলনামূলক ভালো জায়গায় শেষ করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের যোগ্যতা অর্জন করে। কিন্তু ২০২৩/২৪ অর্থাৎ নতুন মরশুমের শুরুতে একেবারেই ভালো ছন্দে নেই ইউনাইটেড। গত বছর একাধিক তারকাকে দলে আনলেও তাদের কাছ থেকে সেরাটা আদায় করতে ব্যর্থ টেন হাগ। সমস্যা দেখা যাচ্ছে একাধিক ফুটবলারের সঙ্গে তার সম্পর্কে। এর মধ্যে শনিবার ব্রাইটনের কাছে ম্যানচেস্টার হারের পর সমর্থকরা আর হতাশা চেপে রাখতে পারেননি। ম্যাচ চলাকালীনই তাদের একসময়ের প্রিয় মহাতারকা রোনাল্ডোর নামে জয়ধ্বনি দিয়ে ‘ভিভা রোনাল্ডো’ গানটি গাইতে থাকেন একাংশের সমর্থকরা। একসময় ক্লাবের অব্যবস্থার বিরুদ্ধে কথা বলে সমর্থকদের বিষদৃষ্টির শিকার হয়েছিলেন তিনি। আজ লিগের শুরুতে ৫ ম্যাচের ৩টি-তে হেরে হয়তো সেই সমর্থকরাই বুঝতে পেরেছেন যে রোনাল্ডোর কথার বেশ কিছুটা হয়তো সত্যিই ছিল।

আরও পড়ুন: কলকাতাতেও চাই! বার্সা ভক্ত সৌরভকে নিয়ে রিয়াল মাদ্রিদের স্টেডিয়াম পরিদর্শন করে দাবি মমতার

আর যার স্মৃতিতে এই গানটি গাইছেন ইউনাইটেড সমর্থক তিনি নিজে কি করছেন? ৩৮ বছর বয়সে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো আপাতত তুলনামূলক কম প্রতিযোগিতামূলক সৌদি প্রো লিগে ফুটবল খেলছেন। কত মরশুমের মাঝপথে যখন তিনি এশিয়ার এই লিগে এসেছিলেন তখন কয়েকটি ম্যাচে গোল করলেও নিজের সেরা ছন্দটা পাননি ফিরে। কিন্তু এই মরশুর শুরু থেকেই অসাধারণ ছন্দে রয়েছেন তিনি। দলকে জিতিয়েছেন ভারত চ্যাম্পিয়নস কাপ। লিগে ৫ ম্যাচ খেলে শনিবার করে ফেললেন নিজের সপ্তম গোল। তার কামানের গোলার মতো নেওয়ার ব্যাপারে কিক অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট না হলে অষ্টম গোলটিও পেয়ে যেতেন শনিবার। বাঁ পায়ের জোড়ালো শটে এদিন এমনিতে দুর্দান্ত গোল করেছেন সিআরসেভেন।

 

Avatar
Reetabrata Deb

সম্পর্কিত খবর