টাইমলাইনভারত

যেই থানা উদ্বোধন করেছিলেন, সেই থানাতেই বেধড়ক মার খেলেন সচিনের সুপার ফ্যান সুধীর গৌতম

বাংলা হান্ট ডেস্ক: গত বৃহস্পতিবার একটি দুর্ভাগ্যজনক ঘটনার সম্মুখীন হলেন ভারতীয় ক্রিকেটার সচিন তেন্ডুলকরের বিখ্যাত ফ্যান সুধীর গৌতম। মুজফ্ফরপুর জেলার টাউন থানা এলাকায় এক পুলিশকর্মী তাঁকে অশ্লীলভাষায় গালিগালাজ এবং মারধর করেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

এই ঘটনার পরেই তিনি টাউন থানার DSP রামনরেশ পাসোয়ানকে গোটা বিষয়টি সম্পর্কে জানান এবং একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে DSP গোটা বিষয়ের তদন্ত করে যথাযোগ্য পদক্ষেপ গ্রহণ করার আশ্বাস দিয়েছেন।

জানা গিয়েছে যে, সুধীর কুমারের খুড়তুতো ভাই কিষান কুমারকে গত বৃহস্পতিবার টাউন থানার পুলিশ আটক করেছিল। সন্ধ্যাবেলা বাড়ি পৌঁছনোর পরে পরিবারের পক্ষ থেকে তাঁকে জানানো হয় যে, কিষান কুমারকে পুলিশ তুলে নিয়ে গিয়েছে। কিন্তু, কেন এই ঘটনা ঘটেছে সেই ব্যাপারে তাঁকে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

এরপর সুধীর নিজেই থানায় গিয়ে হাজির হয়ে দেখেন যে, পুলিশ তাঁর খুড়তুতো ভাইকে জেলের মধ্যে আটক করে রেখেছে। সুধীর ভাইয়ের কাছে গিয়ে গোটা বিষয়টি জানতে চাইলে তাঁর ভাই জানান যে, তাঁর এক বন্ধু একটি জমি কিনেছিল। সেখানে সাক্ষী হিসেবে কিষান কুমারের নাম দেওয়া হয়। সেই জমি সংক্রান্ত বিবাদের কারণেই পুলিশ তাঁকে তুলে নিয়ে আসে।

তবে ঝামেলার সূত্রপাত সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানা না গেলেও সুধীর যখন নিজের ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলছিলেন, ঠিক সেইসময় থানার এক পুলিশকর্মী তাঁকে গালিগালাজ করতে শুরু করেন। এই ঘটনার বিরোধিতা করতে গেলে, সুধীরকে মারধর করা হয়। এমনকি, তাঁকে লাথি মারা হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

এদিকে, দুর্ভাগ্যজনক এই ঘটনার পরই সুধীর থানা থেকে বেরিয়ে গিয়ে পুরো ঘটনাটি DSP-র সামনে তুলে ধরেন। তারপরেই উচ্চপর্যায়ের তদন্তের আশ্বাস দেন DSP। এই প্রসঙ্গে সুধীর গৌতম জানিয়েছেন যে, “এটা আমার চরম দূর্ভাগ্য। যে থানার ফিতে কেটে আমি উদ্বোধন করলাম, সেই থানাতেই আবার আমাকেই মারধর করা হল।” এই ঘটনার খবর সামনে আসতেই স্বভাবতই সুধীরের জন্য দুঃখপ্রকাশ করেছেন সকলেই।

Related Articles

Back to top button