টাইমলাইনবিনোদন

ছিছোরে সিনেমায় আত্মহত্যা না করার জন্য ভালো উপদেশ দিয়েছিলেন সুশান্ত

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ এই বছর আমাদের ছেড়ে চলে যাওয়া বলিউড অভিনেতাদের মধ্যে সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) নামও যুক্ত হয়ে গেলো। উনি মুম্বাইতে নিজের ঘরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। নিজের ফ্ল্যাটে সিলিং এর সাথে ঝুলন্ত ওনার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সুশান্তের বাড়ির পরিচারক পুলিশকে ফোন করে এই কথা জানায়। সিরিয়ালে কাজ করার পর বলিউডের সিনেমায় অভিনয় করা সুশান্ত নিজের অভিনয় দিয়ে সবার মন জয় করে নিয়েছিলেন।

সুশান্ত সিং রাজপুত সবার আগে ‘কিস দেশ মে হেয় মেরা দিল” সিরিয়াল দিয়ে নিজের অভিনয় জীবনের শুরু করেন। এরপর একটা কাপুরের ধারাবাহিক ‘পবিত্র রিশতা” থেকে নাম কামান। এরপর থেকে ওনার সিনেমার সফর শুরু হয়। ‘কাই পো চে” থেকে বড় পর্দায় কাজ করা শুরু করেন সুশান্ত। প্রথম সিনেমায় অভিনয়ে অনেক নাম কামিয়ে নেন তিনি। সম্প্রতি তিনি ছিছোরে এবং সোনচিড়িয়া’র মতো বড়বড় দুটি সিনেমায় অভিনয় করেন।

সম্প্রতি ওনার প্রাক্তন ম্যানেজার দিশা সালিয়ান আত্মহত্যা করেছিলেন। উনি মুম্বাইয়ের মালাডে ১৪ তলার একটি বিল্ডিং থেকে লাফ দিয়ে আত্মহত্যা করেছিলেন। বোরিভ্যালির একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে ওনাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। দিশার আত্মহত্যার এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই সুশান্ত আত্মহত্যা করেন। দিশা কি কারণে আত্মহত্যা করেছিলেন, সেটা এখনো জানা যায়নি।

আরেকদিকে, সুশান্তের আত্মহত্যার কারণ মানসিক অবসাদ বলা হচ্ছে। ২০২০ তে আমরা বলিউডের দিগগজ অভিনেতা ইরফান খান, ঋষি কাপুরকে হারিয়েছি। আর সেই শোক কাটতে না কাটতেই আজ সুশান্ত সিং এর এই খবর সামনে এলো। এছাড়াও বিখ্যাত সঙ্গীতকার ওয়াজিদ খানও কিছুদিন আগেই মারা যান। সুশান্ত সিং কিছুদিন আগে নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট থেকে মায়ের একটি ছবি শেয়ার করেছিলেন।

আপানদের জানিয়ে দিই, ২০০২ সালে সুশান্ত সিং এর মায়ের মৃত্যু হয়। তখন সুশান্তের বয়স মাত্র ১৬ বছর ছিল। নিজের মাকে স্মরণ করে ইনস্টাগ্রামে শেষ পোস্টে সুশান্ত সিং মাকে নিয়ে একটি আবেগপ্রবণ পোস্ট করেছিলেন। বলিউড অভিনেতা অক্ষয় কুমার, ক্রিকেটার বিরেন্দ্র সহবাগ এবং বলিউড সমেত দেশে বড়বড় মুখেরা সুশান্ত সিং এর মৃত্যু নিয়ে শোক প্রকাশ করেন।

উনি যেমন অভিনয়ে ভালো ছিলেন, তেমন উনি পড়াশোনাতেও খুবই ভালো ছিলেন। উনি ইঞ্জিনিয়ারিং এর পড়াশুনো ছেড়ে অভিনয়ের রাস্তা বেছে নেন।  ২০০৩ সালে ইঞ্জিনিয়ারিং প্রবেশ পরীক্ষায় তিনি গোটা ভারতে সপ্তম স্থান হাসিল করেছিলেন। সুশান্ত সিং ২০০৩ এ দিল্লীর কলেজ অফ ইঞ্জিনিয়ারিং প্রবেশ পরীক্ষায় অল ইন্ডিয়ায় সপ্তম স্থান হাসিল করেছিলেন।

এরপর সুশান্ত সিং দিল্লীর কলেজ অফ ইঞ্জিনিয়ারিং (বর্তমানে দিল্লী টেকনিক্যাল কলেজ) থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়াশোনা শুরু করেন। কিন্তু কোর্সের তৃতীয় বছরেই উনি পড়াশোনা ছেড়ে অভিনয়ে ঢুকে পড়েন। এমনকি তিনি ফিজিক্সে ন্যাশানাল অলিম্পিয়ার্ড জয়ীও ছিলে। আইএসএম ধানবাদ সমেত উনি প্রায় ১১ টি ইঞ্জিনিয়ারিং পরীক্ষার পাস করেছিলেন। উনি থিয়েটার আর ডান্স ক্লাস জয়েন করে নেন। আর এরপর থেকেই ওনার পড়াশোনায় সমস্যা শুরু হয়।

Back to top button